হে জনসমুদ্র , আমি ভাবিতেছি মনে
কে তোমারে আন্দোলিছে বিরাট মন্থনে
অনন্ত বরষ ধরি । দেবদৈত্যদলে
কী রত্ন সন্ধান লাগি তোমার অতলে
অশান্ত আবর্ত নিত্য রেখেছে জাগায়ে
পাপে - পুণ্যে সুখে - দুঃখে ক্ষুধায় - তৃষ্ণায়
ফেনিল কল্লোলভঙ্গে । ওগো , দাও দাও
কী আছে তোমার গর্ভে — এ ক্ষোভ থামাও ।
তোমার অন্তরলক্ষ্মী যে শুভ প্রভাতে
উঠিবেন অমৃতের পাত্র বহি হাতে
বিস্মিত ভুবন - মাঝে , লয়ে বরমালা
ত্রিলোকনাথের কণ্ঠে পরাবেন বালা ,
সেদিন হইবে ক্ষান্ত এ মহামন্থন ,
থেমে যাবে সমুদ্রের রুদ্র এ ক্রন্দন ।