তোমারি উদ্যানে তোমারি যতনে উঠিল কুসুম ফুটিয়া

তোমারি উদ্যানে তোমারি যতনে উঠিল কুসুম ফুটিয়া
এ নব কলিকা হউক সুরভি তোমার সৌরভ লুটিয়া।
প্রাণের মাঝারে নাচিছে হরষ সব বন্ধন টুটিয়া।
আজি মন চায়, অঞ্জলি লয়ে ধাই তব পানে ছুটিয়া।
যে প্রিয় নামটি দিলাম শিশুরে স্নেহের সাগর মথিয়া
সে নামের সাথে তব পূত নাম থাকে যেন সদা গ্রথিয়া।
হাসি দিয়া এরে করো গো পালিত তব স্নেহকোলে রাখিয়া;
নয়নেতে দিয়ো, মা গো স্নেহময়ি, প্রেমের অঞ্জন আঁকিয়া।
যেন স্বার্থের কঠিন আঘাতে যায় না কুসুম ঝরিয়া।
রক্ষিয়ো নাথ, তোমার বক্ষে সকল দুঃখ হরিয়া।
দেখো প্রভু দেখো, চালাইয়ো এরে তুমি নিজ হাতে ধরিয়া;
মঙ্গল-পানীয় দিয়ো তুমি দিয়ো পরান-পাত্র ভরিয়া।
দীর্ঘায়ু হোক এ কোমল শিশু সকলের প্রেমে বাড়িয়া;
সে জীবনে প্রভু, যেন কোথা কভু না যায় তোমারে ছাড়িয়া।

বেহাগ-খাম্বাজ