প্রধান মেনু খুলুন

নির্ঘণ্ট:সিক্ত সিঁথি দুরন্ত শ্রাবণ.pdf

সিক্ত সিঁথি দুরন্ত শ্রাবণ.pdf

সূচীপত্র একটি কবিতার প্রার্থনায় (জীর্ণ একটা পুথি তোমার রোদুরে (সকালে সূর্যের কাছে) সুরঙ্গমা (কথা সাজাই কথা ) কবি সম্মেলন ( ছ'জন প্রখ্যাত কবি ) বসন্তী (সরু করুণ আঙুলে বোন ) যখন বিকেল ( গা ধুতে সে নেমে গেল ) ছুটি দিন (আজ তমসা-ভাস রাত্রি) ছাব্বিশ বছর আগে (লোকটা অদ্ভুত ) রবীন্দ্র জন্ম-শতবর্ষে (কে জানে তোমায় ) চোখ (অন্ধকারের অবয়বে ) দাডিয়ে আছো তুমি আমার (ছাড়িয়ে এলাম) কলহান্তরিত (গড়ো আর ভেঙে দাও ) রাঙা রোদের দিকে ( খাচায় ছিল আকাশ ) প্রাণলগ্ন (তোমাকে সবৃচে বেশি ) হংসপর্দিক (পলাতক মুহূর্তের ছবি ) সুষ্ঠাতা-কে (নিরেট রোদ দিয়ে) অসম্ভব (এইটুকু টুকু জলে ) এপার ওপার (চাদ চাদ চাদ গগণ-চাদ ) তবু কুমীর এলো না (এক চুপড়ি এক চুপড়ি) . মিন্টর জন্তে (মা বলেছিলো ওদিকে ) ক্ষণান্ত (সন্ধ্যায় পীত নদী-লেখায় ) স্পশাকুর (আমার রাত্ৰি কঁপে ) কথা বলবে না (কথায় দেউলে হয়ে ) একটি বৃষ্টি রাতের স্মরণে ( আমি জেগে আছি ) প্রসাধন (বৈকালিক প্রসাধনে ব্যস্ত ) নিজেকে নিয়ে ( সাগরে স্নান কোরোন ) শীতার্ত (দুটি উষ্ণ পশম-গুট) অপত্রিয়মান (যেয়োনা শান্ত সাজানে| ) Y } א ג )○ X 8 } (l )や y a )げ Xo

  • }

२२ R8 रे (१ २७ ༣ ༽ ՀԵ সূচীপত্র স্বাক্ষনিবেদন (এ আমি জানতা) শেষ ধন্ট (উজ্জল বদী তত্ত্ব) এখনো যা (তোমার সমস্ত আমি) নট (আলো জেলে না) রিজার্ভ ফরেস্ট (অরণ্য, যদিও নেই) কথার (রাতের রাঙা স্রোতে ) নিজের তর্পণে (বলে মল্লিকা-বন ) উত্তরাপথ (যেয়োনা উত্তরে হাওয়া) নলিনীকে (অরণ্য তোমার ফুল) দিনবৃত্ত (আজ দিন যাপনের চেন ) প্রিতীপ (বৈশাখীর মুখেই বড়ে) চিত্ৰলেখা (নিস্রোত জল, পায়ের পাতা) ইচ্ছে হলে (ইচ্ছে হ'লে মিলিয়ে দেওয়া) রূপান্তর (দেখতে পেলুম, তোমার) ছাতিম তলা (কাছে আসতেই পাতা লে) বিরচিত শোক (ক্যামেরার মানে এসে) রোদের দোল্‌না (টু চোখে রোদের দোনা) বিকল্পিত (তুমি না হয় অন্য কেউ) অসৌজন্য (সৌজন্য তোমার জন্য) পুনরাবৃত্ত (ফ করে জেলে দেশলাই কার্ট) অন্য ভূমিকায় (উপন্যাসের চরিত্র হয়ে) স্বগত (আমি দুঃখ ডেকে আনি ) অ-স্বকীয় (আহারান্তে হাতে ঠেকৃলো) বর্ণমালা (দীর্ঘ 'অ'-কার স্বরবর্ণ) অস্তুর (এখান চোং বৃক্কলে) ९b W)) אנ\ W) W)8 W)も ७१ V)r 8) 8२ 80 88 8 & 8ፃ 8br 88 ( ) ( २ (○ (.8 ( &

( &