পাতা:অচলায়তন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অচলায়তন وا(Cا পঞ্চক । জানিস, আমাদের গুরু আসবেন ? প্রথম শোণপাংশু। সত্যি নাকি । তিনি মানুষটি কী রকম। তার মধ্যে নতুন কিছু আছে। পঞ্চক। নতুনও আছে পুরোনোও আছে। দ্বিতীয় শোণপাংশু। আচ্ছা এলে খবর দিয়ো—একবার দেখব তাকে । পঞ্চক। তোরা দেখবি কী রে । সর্বনাশ । তিনি তো শোণপাংশুদের গুরু নন | র্তার কথা তোদের কানে পাছে এক অক্ষরও যায় সেজন্যে তোদের দিকের প্রাচীরের বাইরে সাত সার রাজার সৈন্য পাহারা দেবে। তোদেরও তো গুরু আছে—তাকে নিয়েই— তৃতীয় শোণপাংশু। গুরু ! আমাদের আবার গুরু কোথায় । আমরা তো হলুম দাদাঠাকুরের দল। এ-পর্যন্ত আমরা তো কোনো গুরুকে মানিনি । প্রথম শোণপাংশু । সেইজন্যেই তো ও-জিনিসটা কী রকম দেখতে ইচ্ছা করে। দ্বিতীয় শোণপাংশু। আমাদের মধ্যে একজন, তার নাম চণ্ডক—তার কী জানি ভারি লোভ হয়েছে ; সে ভেবেছে তোমাদের কোনো গুরুর কাছে মন্ত্র নিয়ে আশ্চর্য কী একটা ফল পাবে—তাই সে লুকিয়ে চলে গেছে । তৃতীয় শোণপাংশু। কিন্তু শোণপাংশু বলে কেউ তাকে মন্ত্র টুতে চায় না। সেও ছাড়বার ছেলে নয় সে লেগেই রয়েছে । তোমরা মন্ত্র দাও না বলেই মন্ত্র আদায় করবার জন্যে তার এত জেদ । প্রথম শোণপাংশু। কিন্তু পঞ্চকদাদা, আমাদের ছুলে কি তোমার গুরু রাগ করবেন। পঞ্চক । বলতে পারিনে—কী জানি যদি আপরাধ নেন। ওরে,