পাতা:অচলায়তন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৭৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অচলায়তন ο ο এমন কথা যদি স্বয়ং মহামহর্ষি জলধরগর্জিতঘোষ স্বস্বরনক্ষত্রশস্তৃস্থমিত এসেও বলেন তবু আমি মানতে পারব না। পঞ্চক। আঃ দেখতে দেখতে কী মেঘ করে এল। শুনছ আচার্যদেব, বজের পর বজ্র । আকাশকে একেবারে দিকে দিকে দগ্ধ করে দিলে যে । আচার্য। ওই যে নেমে এল বৃষ্টি—পৃথিবীর কতদিনের পথ-চাওয়া বৃষ্টি—অরণ্যের কত রাতের স্বপ্ন-দেখা বৃষ্টি । পঞ্চক । মিটল এবার মাটির তৃষ্ণ–এই যে কালো মাটি—এই যে সকলের পায়ের নিচেকার মাটি । ডালিতে কেয়াফুল কদম্বফুল লইয়া বাদ্যসহ দর্ভকদলের প্রবেশ আচার্য। বাবা, তোমাদের এ কী সমারোহ। আজ এ কী কাণ্ড । প্রথম দৰ্তক। বাবাঠাকুর, আজ তোমাদের নিয়েই সমারোহ। কখনো পাইনে আজ পেয়েছি । দ্বিতীয় দৰ্ভক। আমরা তো শাস্ত্র কিছুই জানিনে—তোমাদের দেবতা আমাদের ঘরে আসে না । তৃতীয় দৰ্ভক। কিন্তু আজ দেবতা কী মনে করে অতিথি হয়ে এই অধমদের ঘরে এসেছেন। প্রথম দৰ্তক। তাই আমাদের যা আছে তাই দিয়ে তোমাদের সেবা করে নেব । দ্বিতীয় দৰ্ভক। আমাদের মন্ত্র নেই বলে আমরা শুধু কেবল গান গাই ।