পাতা:অচলায়তন - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অচলায়তন br○ তৃতীয় বালক । এত আলে৷ তে আমরা কোনোদিন দেখিনি । প্রথম বালক । কোথাকার পাখির ডাক এখান থেকেই শোনা যাচ্ছে । দ্বিতীয় বালক । এ-সব পাখির ডাক অমর তো কোনোদিন শুনিনি । এ তে আমাদের খাচার ময়নার মতে একেবারেই নয় । প্রথম বালক । আজ আমাদের খুব ছুটতে ইচ্ছে করছে। তাতে কি দোষ হবে মহাপঞ্চকদাদ । মহাপঞ্চক । আজকের কথা ঠিক বলতে পারছিনে। আজ কোনো নিয়ম বক্ষ করা চলবে বলে বোধ হচ্ছে না । প্রথম বালক । আজ তাহলে আমাদের ষড়াসন বন্ধ ? মহাপঞ্চক । ই বন্ধ । সকলে । ওরে কী মজা রে মজা । দ্বিতীয় বালক । আজ পংক্তিধেীতির দরকার নেই ? মহাপঞ্চক । না । সকলে । ও রে কী মজা। আঃ আজ চারিদিকে কী আলো । জযেত্তিম । আমারও মনটা নেচে উঠছে বিশ্বম্ভর । এ কি ভয়, না আনন্দ, কিছুই বুঝতে পারছিনে। বিশ্বম্ভর । আজ একটা অদ্ভুত কাণ্ড হচ্ছে জয়োত্তম । সঞ্জীব । কিন্তু ব্যাপারটা যে কী ভেবে উঠতে পারছিনে। ওরে ছেলেগুলো, তোরা হঠাৎ এত খুশি হয়ে উঠলি কেন বল দেখি । প্রথম বালক। দেখছ না সমস্ত আকাশট যেন ঘরের মধ্যে দৌড়ে এসেছে । দ্বিতীয় বালক । মনে হচ্ছে ছুটি—আমাদের ছুটি । তৃতীয় বালক । সকাল থেকে পঞ্চকদাদার সেই গানটা কেবলই আমরা গেয়ে বেড়াচ্ছি।