পাতা:অচিহ্নিত কার্য্যকারকেরদের ছুটীর ও পেনস্যনের বিধি.pdf/৫৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ sv- ) ভাহা গবৰ্ণমেণ্টকে জানাইৰার অ’াশাক হইবেক ন – পেনসানের ১৪ বিধি । ৬৩। সিবিল অডিটর সাহেবের অরে। কৰ্ত্তবা যে স্থিসাৰী প্রত্যেক বৎসরের শেষে, যত পেনশ্যন রহিত হইয়াছে ও যত ভূতন পেনসান দেওয়া গিয়ছে তাহার তুলনা করিয়া এক কৈফিয়ৎ দাখিল করেন । এবং পেনসাম ভোগি ব্যক্তির মরণোত্তর চাতুরী করিয়া পেনসন বজায় রাখণের ব্যবহার নিবারণ হয় এই নিমিত্তে, ঐ কার্য্যকারকের উচিত যে মধুষ্যের আয়ুর দীর্ঘত বুঝির গড়ে সামান’তৃঃ যত লাক মরিবার অপেক্ষ হইতে পারে এবং প্রতিবৎসরে পেনসানভোগি বত্ত্বিরদের भ"था रुउ डान भन्निाः झ् ६३ ऊंलग्नद्ध नभएश२ ठूलमा করেন। এখং যত পেনস্যনভোগি ব্যক্তিরদের মর৭ে৭ অপেক্ষ হইতে পারে যদি তত লোক ন ম রয় থাকে তবে এই বিষয়ে চাতুৰী হইয়াছে কি না ইহা তহকীক করিয়া যাহা অৰগত হন তাহ গবৰ্ণমেণ্টৰে জানান।-- পেনসানের ১৫ বিধি । [ঞ্জযুক্ত কাট অফ ডৈরেক্টর্স লাহেবেরদের ১৮৫৫ সালের ১৫ আগষ্ট তারিখের ৭৫ নম্বরের হুকুম। বাঙ্গল দেশের গবর্ণমেণ্টের ১৮৫৫ সালের ১৭ নবেম্বর তারিখের ১৪১৫ নম্বরের হুকুম ] ৬৪। বান্ধকাকাঙ্গের পেনসান যে ব্যক্তি প্রার্থনা করেঃ ভাখার সাধারণমতে প্রয়োজন ৰে আৰশাক কালপর্যন্ত অস্থিচ্ছেদে গৰ4মন্টের কৰ্ম্ম কৰিয়া থাকেন। পরস্তু যদি