পাতা:অজাতশত্রু শ্রীমৎ স্বামী ব্রহ্মানন্দ মহারাজের অনুধ্যান - মহেন্দ্রনাথ দত্ত.pdf/২১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অজাতশত্রু মৎ স্বামী ব্রহ্মানন্দ মহারাজের অনুধ্যান। আমাদের সহিত তাহার বিশেষ ঘনিষ্ঠতা হইল। যুবা রাখাল মনােমােহনদার বাড়ীতে আহার ও শয়ন করিবার বন্দোবস্ত করিল। আমাদের বড় বাড়ী, পড়িবার জন্য আলাদা ঘর, অনেক ছেলে সেখানে পড়াশুনা করিত, আর বাড়ীও পাশাপাশি, সেইজন্য আমাদের পড়িবার ঘরেতেই সে পড়িবার বন্দোবস্ত করিল। আমাদের বাড়ীতেই সে সর্বদা চলা-বসা করিত। সে যেন আমাদের বাড়ীর ছেলে হইয়া গেল। ক্রমে ক্রমে মনােমােহনদার বাড়ীতে রাত্রে আর শুইত না। কুস্তি লড়া ছেলেবেলা হইতেই তাহার কুস্তি লড়িবার বড় ইচ্ছা ছিল। এইজন্য হােগলকুঁড়ের কুস্তিগীর অম্বিকাচরণ গুহ, যাহাকে সাধারণে ‘অম্বু গুহ' বলিত, তাহার আখড়ায় বৈকাল বেলা কুস্তি লড়িতে যাইত। নরেন্দ্রনাথও তখন অস্তু গুহের আখড়ায় কুত্তি লড়িতে যাইত। এইজন্য দুইজনে মেশামিশিও খুব হইয়াছিল। নরেন্দ্রনাথ অস্তু গুহের আখড়া ব্যতীত কাঁসারিপাড়ায় যােগেন পালের কুস্তির আখড়ায় কুস্তি করিত। এখন সেই আখড়ার জায়গায় Training Academy (ট্রেণিং একাডেমী) হইয়াছে। ইহা ব্যতীত সে নবগােপাল মিত্র বা ন্যাশান্তাল মিত্রের National Gymnasiuu (ন্যাশান্যাল জিমন্যাসিয়াম) নামক আখড়ায় অনেক সময় জিমন্যাষ্টিক করিত। এখন ঐ জায়গায় সাধারণ ব্রাহ্ম সমাজ হইয়াছে, তখন ঘােষেদের পুকুর বুজাইয়া