পাতা:অধিকার-তত্ত্ব.pdf/১২৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


s४२ ।। অধিকার-তৰ। মঙ্গল-মূৰ্ত্তি দেখিতে পাইতেছেন না । অনেকে মনে করিতেছেন “ঈশ্বরের জন্য সব পরিত্যাগ করা যায় ।” অতএব সব পরিত্যাগ করিয়া ব্রাহ্ম হওয়া বিধেয় ; আবার ভাবিতেছেন যে যাহ। পরিত্যাগ করিতে উদ্যত হইয়াছি তাহ। কেবল ব্রাহ্ম-সমাজের ভয়ে ও অনুরোধে, ত্রন্ধের অনুরোধে লহে ; তাহারদের হৃদয়ই সে কথার প্রমাণ দিতেছে। এমন লোক হয় ত অনেক আছেন যাহারদের হৃদয় ব্রহ্ম-জ্ঞানে আলোকিত হইয়াছে, কিন্তু ব্রাহ্ম-সমাজের বিজাতীয় ভাবগতিক দেখিয়া অণক্ষেপ করিতেছেন । এই সৰ্ব্ব প্রকার লোককেই আমরা এই প্রস্তাবের মৰ্ম্মানুসারে উপদেশক পদে মনে মনে নিঃস্বাৰ্থ ভাবে বরণ করিলাম । ভঁাহারাও দেখিবেন যে ঈশ্বর উপহারদিগকে পূর্বেই বরণ করিয়া রাখিয়াছেন । অতএব আমরা বিনীত ভাবে পরমেশ্বরের দোহাই দিয়া ধৰ্ম্মপ্রচারণর্থে তাহাদিগকে আহ্বান করিতেছি এবং এই অধিকার-তত্ত্ব দ্বারা তাহারদের বিবেক-শক্তির সম্মুখে নিম্নস্থ কতিপয় সংক্ষেপ ব্যবস্থা উপস্থিত করিয়া দিতেছি । مسبمسمياسمسمصدره ব্যবস্থা । ১ । যাহার যেমন ধারণ তিনি পরমেশ্বরকে তেমনি পূজা করিবেন, তাহাতে পাপ নাই । ২। ঐরুপ অধিকার অনুসারে যাহারা পুতলিকা পূজা করেন, তাহারদের তাছাতে পাপ নাই । ষে প্রচারকেরা