পাতা:অধিকার-তত্ত্ব.pdf/৩২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অধিকার-তত্ত্ব । g २: দেশ কাল, ও "পাত্রভেদে সেই অধিকারের সামান্যতা ও বিশেষভা, দুর্বলতা ও সবলতা ; অবনতি ও উন্নতি এবং শ্ৰেষ্ঠত্ব ও কনিষ্ঠত্ব সৰ্ব্বত্রই দৃষ্ট হয় । ২ । উপাসকগণ প্রধানতঃ দুই ভাগে বিভক্ত । প্রথমতঃ দুৰ্ব্বলাধিকারী, দ্বিতীয়তঃ সবলাধিকারী । ৩ । যাহারা ভগবানের পূজার উদ্দেশে মানবের মন, বুদ্ধি ও অগত্বাকে আদর্শ করিয়া কোন স্বাভাবিক-প্রভাবশালী পদার্থে, কোন বীৰ্য্যবান নরে, অথবা নিরাকার ঈশ্বরবোধক কোন শূন্য-নামে সেই মন, বুদ্ধি, আত্মার শক্তি ও গুণের কম্পিত শ্রেষ্ঠত্ব আরোপ করেন এবং তাদৃশ অারোপণ পূর্বক মৃত্তিকা-প্রস্তরাদি দ্বারা বাহেন্দ্রিয়-গ্রাহ অথবা মানসিক-উপকরণদ্বারা ঈশ্বরের মূৰ্ত্তি গঠিয়া লন, র্তাহার। দুৰ্ব্বলাধিকারী । র্তাহারদের আত্মা বিষয়, ইন্দ্রিয়, মন, বুদ্ধি, কণপনা ও অহঙ্কারে বিমোহিত, সুতরাং উপহারদিগের আত্মাভে ব্রহ্মজ্ঞানের যে মূল-অধিকার অাছে এবং ব্রহ্মপূজার যে স্বাভাবিক লালসা আছে তাহ মন, বুদ্ধি, বিষয়, ইন্দ্রিয়াদির বিন সাহায্যে, সাক্ষাৎ-সম্বন্ধে ঈশ্বরকে প্রকাশ করিতে পারে না। তাহা ঐসকল ব্যাপারের মধ্য দিয়া ঈশ্বরকে প্রকাশ করিতে যায়, কাজেই ইন্দ্রিয়-বিশিষ্টমনোময়-বিষয়ী ঈশ্বরকে কম্পনা করিয়া ফেলে । কিন্তু ঈশ্বরকেই পূজা করা ইহারদের উদ্দেশ্য । ৪ । দুৰ্ব্বলাধিকারিগণ দ্বিবিধ । -- ৫ । যাহারা সুর্য্যবৰুণাদি দেবগণকে ও কেন জীবিত নরকে প্রত্যক্ষে বা প্রতিমা দ্বারা, এবং ব্রহ্মা বিষ্ণু প্রভৃতি