পাতা:অধিকার-তত্ত্ব.pdf/৪৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অধিকার-তত্ত্ব । ు ↔ স্থূলত্ব সেই ব্রহ্মোপাসনায় যোজিত হইয়া ব্রহ্মোপাসনাকে ও ব্রহ্মজ্ঞানকে লোকের চক্ষুর সম্মুখে চিরকালের নিমিত্তে অলপ ও হীন করিয়া রাখিবে । 修 ৬ । যদিও তাদৃশ অবস্থায় সবলাধিকারীদিগের কোন ক্ষতি হইবেক না, কিন্তু ব্রহ্মজ্ঞান শব্দে কলঙ্কম্পর্শ হইবেক । নামে অনেকেই ব্রহ্মজ্ঞানী, ব্রহ্মোপাসক বা ব্রাহ্ম হইবেন, কিন্তু কাৰ্য্যতঃ অধিকাংশ লোকেই দুৰ্ব্বলাধিকারী রহিয়া যাইবেন । তাছাতে ব্রাহ্ম নাম হাস্যাম্পদ হইবেক । সুদ্ধ হাস্যাস্পদ হইয়া নিরস্ত হইবে এমত নহে, কিন্তু সেই নাম অভিমানের অলঙ্ঘ্য-ভূধর-স্বরূপ হইয়া প্রকৃত ব্রহ্মজ্ঞানকে আবরণ করিয়া রাখিবেক । 蠍 ৭ । যে ব্রাহ্মণের ব্রহ্মজ্ঞানের সবল অধিকারী হওয়াতে প্রাচীন কালের স্থলোপাসক বৈদিগ-ঋষিগণ হইতে আপনার পৃথক হইয়া ব্রাহ্মণ নাম লইয়াছিলেন, পশ্চাৎকালে তাহারদেরই বংশ সকল আবার অপেক্ষাকৃত স্কুলেপাসনা ও পৌত্তলিক-ক্রিয়াকলাপ প্রচার করিলেন । কে না অবগত আছেন যে বৈদিগ্বদিগের সরল স্কুল-উপাসনা অপেক্ষাও ব্রাহ্মণেরা এখন অধিকতর পৌত্তলিকতায় অবতরণ করিয়াছেন । র্তাহারদের সেই ব্রাহ্মণ নামই রহিয়াছে, কিন্তু তাহার কার্য্যে আর ব্রাহ্মণ নাই । ঐ সংজ্ঞা এখন কেবল জাতিবাচক হইয়া রহিয়াছে । বরং এইক্ষণ যে অম্প সংখ্যক লোকের ব্রহ্মজ্ঞানের অধিকার সবল হইতেছে, র্তাহারাই প্রকৃত প্রস্তাবে “ ব্রাহ্মণ ” নামের, যোগ্য ।