পাতা:অধিকার-তত্ত্ব.pdf/৫২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অধিকার-তত্ত্ব । 83. খৃষ্ঠ ভিন্ন গতি নাই । সুতরাং খৃষ্টানদেশের জ্ঞানবান লোকে রাও খৃষ্টকে পরিভ্যাগ করিতে পারিতেছেন না । তথাকণর দুই এক জন মহাপুৰুষ যদিও খৃষ্টবিহীন উন্নত-ধৰ্ম্ম আপন আপন অধিকার-মত অবলম্বন করিয়াছেন, কিন্তু তাহাতে ভঁাহারা একেবারে খৃষ্টীয়শাস্ত্রের বাহিরে গিয়াপড়িয়াছেন । ৭ । মুসলমান-ধর্মের প্রকৃতিও হিন্দুধৰ্ম্মের-ন্যায় উদার নহে । যদিও মুসলমানের একমাত্র নিরাকার পরমেশ্বরকে মানেন কিন্তু তাহারদের মত অত্যন্ত সুক্ষম ও নহে অত্যন্ত স্থলও নহে । তাহারদের মতে পরমেশ্বর কতক কতক নিরাকার, তাহারদের মহম্মদ কতক , কতক অবতার । উক্তমতে অত্যন্ত অণপমেধাবিশিষ্ঠ সাধকের উপযুক্ত উপকরণ নাই । সেজন্য আরবীয় ইতর লোকেরা যার পর নাই দুৰ্বত্ত । যে সকল অপমেধাবিশিষ্ঠ মুসলমান ভারতীয় দুৰ্ব্বলাধিকারীদিগের কোমল সংসৰ্গ লাভ করিয়াছিল তাহারাই মুসলমানদিগের মধ্যে অপেক্ষাকৃত থাৰ্ম্মিক । তাহারণ কোরাণের কঠিন শাসনের অবমাননা করিয়া শত শত গাজী পীর, ও পয়গম্বরের পূজা ও তাজায়। সৃষ্টি করিয়াছে। তাহাকে এক প্রকার পেত্তলিকতা ভিন্ন কি বলিব ? তাহারদের সরায় ( শাস্ত্রে ) এইরূপ কঠিন শাসন আছে ষে পুত্তলিকার পূজা ওদিগে থাকুক, কেহ আপন গৃহে কোন পীর পয়গম্বর বা দেবতার তস্বির রাখিতে ও কোন ক্রিয়াতে বাদোদ্যম করিতে পরিবেক না । কিন্তু জলকে হস্ত দ্বারা কে ঠেলিয়া রাখিবে ? 5