পাতা:অধিকার-তত্ত্ব.pdf/৬৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অধিকার-ভৰ্ত্ত । to জনক বিষয়ে উপদেশ দিবেন। এক প্রকারের উপদেশ সকলের অধ্যাত্মিক ৰুচি ও প্রকৃতিতে সংলগ্ন হুইবেক মা ; এজন্য অগ্রে পরীক্ষাদ্বারা প্রত্যেকের ভাব ভঙ্গী জানিবেন ; পশ্চাৎ ভঁtহার দিগকে উপদেশের নিমিত্তে দ্বিবিধ উপায় অবলম্বন করিবেন । প্রথমতঃ কথোপকথন দ্বারা প্রত্যেকের ধৰ্ম্ম পিপাসা শান্ত করিবেন । দ্বিতীয়তঃ ধৰ্ম্মেপিদেশের নিমিত্তে সভ করত শ্রোতাদিগের সাধারণ অধিকার ও ব্রহ্মজ্ঞানের মর্য্যাদা রক্ষা করিয়া সাধারণ ভাবে স্তোত্র বন্দন ও বক্ততাদি দ্বারা সকলের প্রীতি ভক্তিকে জাগরিত করিয়া তুলিবেন । মনঃকম্পিত গম্প এবং পৌরাণিক অলিক গম্প দ্বারা তাহারদিগের চিত্ত রঞ্জন করিবার চেষ্টা করবেন না । প্রত্যুত সৰ্ব্বতোভাবে সে সকল অলীকতা বর্জন করিবেন । তাহারদিগকে ভগবানের পূজার সর্বাপেক্ষা অধিক অণবশ্যকতা জ্ঞাপন করত ক্রেমে ব্রহ্মজ্ঞানে ও আধ্যাত্মিক উন্নতির উচচ সোপানে আকর্ষণ করাই তাহার উদেশ্ব থাকিবেক । ঐ উদেশ্ব ভুলিয়া গেলেই চতুর্দিগে অন্ধকার ও তঞ্জ-জাল বিস্তৃত হইবেক । ৬ । যাহারদিগের পৌত্তলিক ধৰ্ম্মে শ্রদ্ধা নাই, অথচ যাহারণ ব্ৰহ্ম-জ্ঞানের ও অধিকারী নহেন, ব্রহ্মজ্ঞ ব্যক্তি র্তাহারদিগের সহিত উগ্র-তন্ধে প্রবৃত্ত ন হইয়া যথা-অধিকার, যথা ধারণ। তাহার দিগকে এক ঈশ্বরের উপাসনায় অনিয়ন করিবেন । যাহাতে র্ত{হাদের ঈশ্বরের অস্তিত্বে বিশ্বাস ও ভক্তির অধিক্য হয়, এমত সকল পুরমারোগ্য জনক উপদেশ প্রদান করিবেন । সৰ্ব্বদা স্ট্র হারদের আত্মার • জ