প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অনাথবন্ধু.pdf/১২৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


¢ዞrጻ «$-ቮት§ት፣ ጓሮማri | ] مخ مصر حـتحـد تھط ha عصصستطع حمص ܣܦܩܝܣܒܡܩܝܣܩܒܣ■ s Y EEED KBDYY BDBBDD S DDBBDB TBBDDD করিবেন না । অখণ্ডভাবে রেতঃধারণা করিতে সক্ষম হইলে সঙ্গীতশাস্ত্ৰে বিশেষাধিকার অবশ্যম্ভাবী । রাত্ৰিজাগরণ বা অতিনিদ্রা, অতিভোজন পরিত্যাগ করিবেন। রাত্রিকালে দধি, শক্ত ও শাকভোজন করিবেন না। লবণ অতি স্বল্পপরিমাণে ব্যবহার করিবেন। দেহের পঞ্চস্থানে তৈলদ্বারা স্নেহসংযুক্ত করিবেন; কিন্তু তৈলভক্ষণ পরিত্যাগ করিবেন । তিথি নক্ষত্রবিশেষে আহার-বিহার করিবেন । षांशं८ङ विश्वांव्र ऊङ| पू श, ७क्र° बङ्ठ 6नवन्न कद्रिवन्न, ঋতুফলমূলাদি সৰ্ব্বদা ব্যবহার করিবেন। মলমূত্রাদির বেগধারণ করবেন না অথবা বিনাবেগে মলমূত্ৰাদি পরিত্যাগ कब्रिड सश्gिदन न । অভিজ্ঞ সঙ্গীতসাধক কখন বায়ু, পিত্ত বা কফ উত্তেজক DBDD BBB TS BDS LLL 0 BDDYS DD বিষ-চিকিৎসা । ".. Σ' αζ হইতে সুরক্ষিত হইবেন । ধ্যানধারণায় মনোনিবেশ করিবেন, সাধুসঙ্গে বাস করিবেন। বারবনিতা বা DtBBD BB DDBBD D S BDDDS DBBLDBBS DD নিষিদ্ধ তিথি নক্ষত্রে রাগরাগিণীর . . আলোচনা পরিত্যাগ করিবেন । সঙ্গীতসাধক উপবিষ্টকালীন মেরুদণ্ড সরল, রাখিবেন, अंग्रनांदशांश्र 5ब्रश्मि लक्षभान ब्रांश्विन, विश्वांभूल जर्दना ধৌত পরিষ্কার রাখিবেন । দিবাভাগে ইড়ানাড়ীতে শ্বাস প্ৰবাহিত রাখিবেন, রাত্রিকালে দক্ষিণ নাসিকায় বা পিঙ্গলানাড়ীতে শ্বাসপ্রবাহ রাখিবেন । নিদ্রা, ধাবন, বচন, মৈথুন ও ভোজনে অতি শ্বাসব্যয় করিবেন না । সুষুম্নানাড়ীতে बांबूथवाश् बूविरळ नत्रौड-बांध्र झेंडारेि कार्थी श्रेष्ड् श्शिङ থাকিবেন । [ कमeः । বিষ-চিকিৎসা । { ব্ৰহ্মচারী শ্ৰীযুত দুর্গাদাস কর্তৃক লিখিত। ] সৰ্প-বিষ । “আস্তিকস্য মুনেমাত বাসুকী-ভগিনীস্তথা । জরৎকারু মুনেপত্নী মনসাদেবী নমোহস্তুতে ৷” রাত্ৰিতে শয়নের সময়, পথে চলিবার বেলায় এবং সৰ্পদংশনমাত্রই উক্ত মনসা-প্ৰণামটি জপ করিলে সৰ্প হইতে কোন ভয় থাকে না । সরকার বাহাদুরের বাৎসরিক মৃত্যু-তালিকা দেখিলে আমরা অতিমাত্ৰ বিস্মিত হই যে, কত লোক অকালে সৰ্পদষ্ট হইয়া প্ৰাণত্যাগ করিতেছে, অথচ তাহাদের চিকিৎসা সর্বত্র সমভাবে ফলদায়ক হইয়া উঠিতেছে না। আজ আমরা সর্পবিষ্য-চিকিৎসাসম্বন্ধে কিছু লিখিব। পাঠকগণ, আশা করি, ঐ বিষয়ে বিশেষ মনোযোগী হইয়া তাহা পাঠ করিবেন। বিষ নানা প্রকারের । কোন কোন বিষ মানুষের দেহে প্ৰবিষ্ট হইবামাত্রই তাহার। প্ৰাণত্যাগ করায় । আবার কোন কোন বিষ উদরে প্রবেশ করিলেও অনেকে মরে না, তবে কঠিন রোগগ্ৰস্ত হয়। মানুষ যেমন জীবহিংসা করে, জীবগুলিও তাহার প্রতিশোধের জন্য মানুষকে হিংসা করিতে ছাড়ে না। তন্মধ্যে সর্প, কুকুর প্রভৃতিই মারাত্মক । বিষ-চিকিৎসায় আমাদের শাস্ত্ৰে আছে, বিষভোজনকারীকে যে কোন সাধক “ওঁ নমো ভগবতে রুদ্রনাশয় (R 1 || বিষ স্থাবরজঙ্গম” এই মন্ত্র জাপাদিদ্বারা আয়ত্ত করিয়া সৰ্পগণসহ তাহাদের বিষ নাশ করিবেন। বিষের উগ্ৰতেজে প্ৰাণ-বায়ুর নিরোধ করিয়া দেয় ; কিন্তু ঐ বিষের উগ্ৰতা দূর করিতে পারিলেই বিষের হস্ত হইতে মানুষকে রক্ষা যায়। ] সৰ্প দংশন করা মাত্ৰই, দংশন-স্থানের প্রায় এক বিগস্তি অথবা পৌণে এক হাতের উপর খুব শক্ত করিয়া একটি বন্ধনী দিতে হইবে এবং জলন্ত অগ্নিদ্বারা দংশনস্থান পুড়াইয়া দিলে বিষের শাস্তি হয়। শিরীষের বীজ ७ शूत्र यावर आकदृक्षज्ञ श्रौद्ध ७ वैौद्ध धान्तं कछुद्धान्, शें । সকলের যে কোন একটা দ্বারা বিষ-চিকিৎসা করা যায় । আকন্দের ক্ষীর ও বীজ পান করাইলে এবং দংশনস্থানে লেপিয়া দিলে ও চক্ষুতে অঞ্জন দিলে বিষে জর্জরিত ব্যক্তির উপকার হয় । শিরীষপুষ্পের রসাযুক্ত মরিচ ও শর্করান্থ পান ও নস্য BDBD BBBBBDL DDDBDDD DY S SBDDS BBS হিঙ্গু, শিরীষ, অর্ক দুগ্ধ (আকন্দের ক্ষীরা), এই সকল একত্ৰ করিয়া ও বৃষ্টির জলের সঙ্গে ত্রিকটু মিশাইয়া নস্যাদি প্ৰদান করিলেও সৰ্প-বিষ হরণ করে । রামঠ, ইক্ষু, আখু ও সর্বাঙ্গ চুর্ণের ন্যস্ত প্ৰদান করিলে ৰিষ নষ্ট হয়। ইন্দ্ৰ, বলা, অগ্নিক, দ্রোণ, তুলসী, দেবিকা Tsar rurNYNusrelas