প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অনাথবন্ধু.pdf/২৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


... see ཤུགྱི་གནམ་གྱིས་ ग३९l 1] Maa-nasaarunaauranassa M. LLLLLL LL LSLSLqL qLL LALL LqLqLSLLLLLqS গ্ৰীয়ে - তাহারা জখম হইয়া পড়ে। মানবদেহের উত্তাপে डॉशब्रा ॐकांय छ्डा कब्रिाङ थांप्का, उांशष्णब्रऐअत्रौगांब्र প্ৰকুই বিকাশ পায়। উত্তাপের সম্বন্ধে যাহা বলা হইল, জলসম্বন্ধেও সেই নিয়ম। অতি বেশী বা অতি কম আর্দ্রতায় তাহাদের পূর্ণ বিকাশ হয় না। জীবদেহের তন্থগুলিতে সাধারণতঃ যে পরিমাণে জল আছে, তাহাই তাহদের পক্ষে যথেষ্ট। বায়ুসম্বন্ধে সকল জীবাণুর এক নিয়ম নহে। কোনও কোনও জীবাণু বায়ু না পাইলে বাচিতে পারে না, আবার কাহারও পক্ষে বায়ুই মৃত্যুর কারণ হইয়া পড়ে। ফল কথা, মানবদেহে যে পরিমাণে উত্তাপ ও জল পায়, তাহাতে জীবাণুর বেশ সজীব অবস্থায় থাকিতে পারে। মানুষ যেমন কোনও এক স্থানে আবদ্ধ থাকিলে, তথায় মলমূত্র ত্যাগ করিয়া, সেই স্থানটিকে ক্রমশ নিজের বাসের অনুপযুক্ত করিয়া তুলে, তেমনই জীবাণুগণ যে স্থানে থাকে, তথায় তাহার একপ্রকারের উগ্ৰ বিষ সৃষ্টি করিতে থাকে। সেই বিষই বেশী পরিমাণে জমিলে, স্বয়ং জীবাণুগণ ধ্বংসপ্ৰাপ্ত হয়। সেই বিষ মানুষের যেখানে লাগে, সেখানে ক্ষত হয় । সেই বিষ রক্তের সঙ্গে মিশিলে জর প্রভৃতি উপসর্গ छेश्रऊि झभञ् । জীবাণুগণ প্রকৃতই রক্তবীজের ঝাড় । দণ্ডে দণ্ডে, পালে পলে তাতারা অসংখ্য হইয়া পড়ে । কোনও প্ৰকায়ে একটি জীবাণু এক স্থানে আশ্ৰয় লাভ করিলে, অল্প সময়ের মধ্যেই তথায় সেই জীবাণুর মহামেলা পরিলক্ষিত হয়। ক্ৰমে সেই জীবাণুসমূদ্রের বিষ্যতরঙ্গে মানবদেহ জর্জরিত शशेद्र *८ ५३ कांव् क्षत्रश्नeक्षुअ ङ् । তবে কি মানব এতই দুর্বল ? সুন্মানুসূক্ষ্ম রোগজীবাণু যে সাৰ্দ্ধত্ৰিহন্ত পরিমিত প্ৰবল পরাক্রান্ত মানবদেহকে বিধবন্ত করিয়া ফেলে, সেই মানবদেহ कि qडरे क्रशख्छूब ? डब कि भांनद वडश् अनशग्रএতই দুর্বল ? ইহার উত্তরে আমাকে বলিতে হইবে, মানবদেহ ক্ষণভঙ্গুরও নহে, মানবজাতি নিঃসহায়ও নহে। পরমকারুণিক পরমেশ্বর আমাদের এই দেহগঠনের সময়ে যে কি uBDDBB D SDD BBB BDDiSuD BDD DBB পরিচয় দিয়াছেন, আমরা তাহার সম্পূর্ণ ধারণা করিতেও 'अक्ष। कूलडांटव डांहांल छू यिक आडानमाल क्रिय । আমাদের দেহের রক্ষার জন্য—জীবাণু প্ৰভৃতি বহিঃশত্রুর হস্ত হইতে দেহকে অক্ষুন্ন রাখিবার জন্য, আমাদের প্রথম 0 0LLD BDSYqDDBYS SDD DBDDYqDDB SS দেহ কুরুক্ষেত্র। যদি একটি ভেকশািবককে (বাঙাচিকে ) অণুবীক্ষণের নিয়ে রক্ষণ করা যায়, তবে শিরা ধমনী প্ৰভৃতির ভিতর দিয়া কিরূপে রক্ত প্ৰবাহিত হইতেছে, তাহ সহজেই দেখা যায়। RQtt9 MYANMAAN es SqSqeALA LALLLALASLS AAALSALL L LLLLL LLLLL M eMSLe LLL LALS LS LMLS AAAAS ASLLLL LA LALAMALAMMAqAeAS AAA AALLSLMAMMAMAM MALMMLTALLLALALLAAA A LLLLL আমাদের রক্ত গাঢ়, লালবৰ্ণ, তরল পদার্থ হইলেও ইহাতে তিনটি জিনিষ দেখা যায়-(১) ঈষৎ হরিদ্রাভ তরল পদার্থ, (২) লাল চাৰ্ত্তী ( 3erf, Red Corpuscles ) qባኛ፣ (o) at 5 tataf ( White Corpuscle), as ang পদার্থের বা শ্বেতকণিকার কোনও বিশেষ আকৃতি নাই । এই শ্বেতকণিকাই আমাদের পরম বন্ধু। - যে- মুহুর্তে শরীরে কোথাও কোন বিজাতীয় জীবাণু বা বিষ কিম্বা অন্য পদার্থ প্রবিষ্ট হয়, সেই মুহুর্তেই দলে দলে শ্বেতকণিকা শিরা ধমনী ত্যাগ করিয়া আক্রান্তস্থলে উপনীত হয়। প্ৰত্যেক শ্বেতকণিকা যতগুলি জীবাণুকে গ্ৰাস করিতে পারে, তাহা করে। এইরূপে গ্ৰাস করিতে করিতে যদি জীবাণুকুলকে নিৰ্ম্মল করিয়া ফেলিতে পারে, তবেই আমরা বাচিয়া DD SDDDD D DDD D DDB DBDBBBD BBBD DBD DBDBS অর্থাৎ শ্বেতকণিকাগণ রোগজীবাণুগণ কর্তৃক বিধ্বস্ত হয়, डरहे आभाएलब्र अभत्रण। यक नाभांछ छूछेख शब्रा ७ কিষয়টি সরল করিতেছি। মনে কর, আজ সেলাই করিতে कब्रिाङ छाऽ श्रुन् ख्षांखांश वांद्र आंभांव्र अत्रूौ विक হইল। কাল সে স্থানটিতে বেদন অনুভব করিব এৰং কিঞ্চিৎ স্ফীতিও লক্ষিত হইবে। আরও দুই দিন পরে হয় । cवजन ७ नौडिब्र डिब्रांडाद श्टब, नङ्गल। cकाड़ा शांत्रिा - পূৰ্য বাহির হইয়া যাইবে। সেই পুষ্য যদি চিকিৎসকের চক্ষে, ছিটুকাইয়া লাগে, তবে তাহার চক্ষে ঠিক ঐ জাতীয় ফোড় হইবে। এ সব ঘটনাগুলিতে কি কি হইল ? পরে পরে धरे ५झे घछेना घाँग :-(७) श्रुाथ शाब्रो स्रवूत्रौ विक झहेবার সময়ে, তৎসহিত কোনও জীবাণু অঙ্গুলীর মধ্যে প্রবিষ্ট হইয়াছিল। (২) তৎপরদিবসে রাশি রাশি শ্বেতকণিকার আগমনজঙ্গ ও তৎসঙ্গে জীবাণুদিগের বংশবৃদ্ধির জন্য সেই স্থানটি ফুলিয়া গেল। (৩) যদি শ্বেতকণিকাগুলি সব জীবাণুগণকে ধ্বংস করিয়া ফেলে, তবে ফুলা কমিয়া যায়, যেহেতু কাৰ্য্য সমাপনান্তে শ্বেতকণিকাগুলি স্বস্থানে প্রত্যাবৰ্ত্তন করে। (৪) যদি জীবাণুগণের বংশবৃদ্ধি হইতে থাকে এবং শ্বেতকণিকাগুলি ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়, তবে-পূৰ্য বলিয়া যে পদার্থ দেখি, তাহা মৃত শ্বেতকণিকার ও সজীব জীবাণুর স্তুপ। (৫) পুযে, সজীব রোগজীবাণু থাকায়, ঐ পূৰ্য চক্ষে লাগিয়া তথায় ঠিক ঐ রূপ ব্যাপার সংঘটিত করায় । এই শ্বেতকণিকা ও জীবাণুযুদ্ধ অহৰ্নিশই দেহাভ্যন্তরে চলিতেছে, এই পুণ্য কুরুক্ষেত্ৰ লীলার ফলে আজ আমরা জীবিত। যদি এই যুদ্ধ অহৰ্নিশ না হইত, তবে আমাদের পক্ষে জীবিত থাকা অসম্ভব হইত। এই শ্বেতকণিকাই আমাদের জীবনDDDSTB S BBDBBDDDS S BDDDBDBS SMK SS BDBDBD সৰ্ব্বদাই দেহ ও মন সুস্থ রাখে, তাহাদের দেহের শ্বেতকণিকার শক্তিও প্রভূত। যাহারা নানাবিধ অত্যাচারে ও অনাচারে দেহ ও মনকে ক্ষুঃ করে, তাহদের রোগপ্ৰবণতাও বেশী ।