প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অনাথবন্ধু.pdf/২৮৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পঞ্জিকা-পঞ্চাঙ্গশোধন । [ কলিকাতা সংস্কৃত-কলেজের জ্যোতিষশাস্ত্ৰাধ্যাপক শ্ৰী রাধাবল্লভ স্মৃতি জ্যোতিষৰ্তীর্থ কর্তৃক লিখিত । ] নমঃ সবিত্রে জগদেকচক্ষুষে জগৎ প্রস্থতি-স্থিতি-নাশ হেতবে। ত্ৰিয়ীময়ায় ত্ৰিগুণাত্মঘারিণে दिब्रि६ि३-नांद्धां०-श्याम ॥ বেদ মন্বাদি প্ৰণীত ধৰ্ম্মশাস্ত্ৰ, পুরাণ ও স্বতন্ত্রাদিতে যজ্ঞ, বিবাহাদি সংস্কার, শ্ৰাদ্ধ, ব্ৰত, দেব-দেবীপূজা যাহা বিহিত চইয়াছে, তাহার যথাযোগ্য কালজ্ঞান আবশ্যক। ধৰ্ম্মশাস্ত্ৰে উল্লিখিত হইয়াছে, অযথাকালে কোন কাৰ্য্য করিলে তাহার কোন ফল হয় না । অযথাকলে কোন কাৰ্য্য করা হইলে যথাকালে পুনৰ্ব্বার তাহ করা উচিত। অকালে চেৎ কৃতং কৰ্ম্ম কালে তস্য পুনঃ ক্রিয়া । কালাতীতন্তু যৎ কুৰ্য্যাদকৃতং তদবিনির্দিশেৎ ৷ | কাল, কাৰ্য্যের অঙ্গ হইলেও দ্রব্যাদি অন্য অঙ্গের অপ্ৰাপ্ততে : যেরূপ তাহার ত্যাগ বা প্ৰতিনিধিদ্বারা কাৰ্য্য সম্পন্ন হয়, কালের সম্বন্ধে সেরূপ নহে ; কাল অনুপাদেয় জন্য মনুষ্যগণের সৃষ্ট নহে বলিয়া ) যথাকালেই কাৰ্যোর বিধান করিবে । অঙ্গত্বেই পি চ কালস্ত্য নত্যাগোহানাঙ্গাবৎ কৃতঃ । অনুপাদেয় রূপত্বাৎ কালে কৰ্ম্ম বিধীয়তে ॥ ধৰ্ম্মশাস্ত্রে আরও উল্লিখিত হইয়াছে,-দেবতাগণ মৰ্ত্ত্যাদিলোকের কোথায় অবস্থিত, তাহা গণনাদ্বারা জানা উচিত । যথাকালে এক আহুতি ও বরং ভাল, অকালে লক্ষ মাহুতিতেও কোন ফল না । গণিতজ জ্ঞায়তে কালে যত্র তিষ্ঠন্তি দেবতাঃ । বরমেকাহুিতিঃ কালে নাকালে লক্ষ কোটিয়ঃ ॥ জ্যোতিষশাস্ত্ৰদ্বারা কালজ্ঞান হয়, এ জন্য জ্যোতিষশাকে বেদের অঙ্গ বলে । সিদ্ধান্তশিরোমণিতে উক্ত ॐप्राहछ,- শাস্ত্ৰাদস্মাৎ কালবোধো যতঃ স্থাৎ । gदांत्र ३२ 6ख्Tांडिब69ाड़भग्मा २ ॥ শাস্ত্ৰেও উল্লিখিত হইয়াছে,-শিক্ষা, কল্প, ব্যাকরণ, নিরুক্তি, ছন্দ ও জ্যোতিষ, এই ছয়টি বেদের অঙ্গ । S D DDB DDDBDB DBDBD DuDB uuS জ্যোতিষাং নিচয়শ্চেতি বেদাঙ্গানি বদন্তি ষষ্ট্র। ভাস্করাচাৰ্য বলিয়াছেন,-জ্যোতিষশাস্ত্ৰ বেদের চক্ষুস্বরূপ এ জন্য অন্য অঙ্গ অপেক্ষা ইহার শ্ৰেষ্ঠতা। কারণ, কর্ণনাসিক্যাদি অঙ্গ থাকিলেও চক্ষুহীন ব্যক্তি কোন কাৰ্য্য সাধনে সমর্থ হয় না । বেদ চক্ষুঃ কিলেদং স্মৃতং জ্যোতিষং মুখ্যাত চাঙ্গ মধ্যে হস্য তেনোচ্যতে । সংযুতোইপীতরৈঃ কৰ্ণনাসাদিতি শ্চক্ষুষাঙ্গেনহীনো ন কিঞ্চিৎকারঃ ॥ বেদে নানা মন্ত্রে ও উপাখ্যানে উপনিষদ এবং ব্ৰাহ্মণাদিতে জ্যোতিষশাস্ত্রের মূলতত্ত্বগুলি সংক্ষেপে বৰ্ণিত হইয়াছে। প্ৰায় সাড়ে তিন হাজার বৎসর পূর্বে মহৰ্ষি লগধ বেদান্তগতি তত্ত্বসকল সংকলিত করিয়া বেদাঙ্গ-জ্যোতিষ নামক জ্যোতিষগ্রন্থ প্ৰণয়ন করেন । বেদাঙ্গ-জ্যোতিষ পাঠ করিলে জানা যায়, সে সময় ক্ৰাস্তিবৃন্ত ও বিষুবন্ধুত্তের সম্পাত কৃত্তিকানক্ষত্রে ছিল । ইহাতে ও অতি সংক্ষেপে জ্যোতিষশাস্ত্রের তত্ত্বগুলি উল্লিখিত হইয়াছে। তৎপর অশ্বিনীনক্ষত্রের নিকটে সম্পাত থাকার সময় সূৰ্য্য, ব্ৰহ্মা প্ৰভৃতি আট জন মহর্ষি আটখানা সিদ্ধান্তগ্ৰন্থ প্ৰণয়ন করেন। শাকিলা-সংহিতান্তর্গত ব্ৰহ্মা-নারদ-সংবাদ ব্ৰহ্মসিদ্ধান্ত হইতে । BDBDB SSDLuDBBBS BD DTDBSDS SY S DY DBD বলিয়াছেন,-আমি (ব্ৰহ্মা ), চন্দ্ৰ, পুলস্ত, সুৰ্য্য, রোমক, বশিষ্ঠ, গৰ্গ ও বৃহস্পতি, এই আট জন হইতে জ্যোতিষশাস্ত্ৰ নিৰ্গত হইয়াছে । এতচ্চ মত্ত: শীতাংশোঃ পুলস্তাচ্চ বিবস্বতঃ। রোমকাচ্চ বশিষ্ঠাচ্চ গর্গাদপি বৃহস্পতেঃ। অষ্টধা নিৰ্গতিং শাস্ত্ৰং স্বয়ং পরম দুলভিম৷ পরাশরের গ্ৰন্থ হইতে আমরা জানিতে পারি, এই আট ক্তন মহর্ষি তঁহাদিগের শিষ্যগণকে এই শাস্তু শিক্ষা দিয়া ছিলেন। তঁহারাও সিদ্ধান্তে প্রণয়ন করিয়াছেন,- নারদায় যথা ব্ৰহ্মা শৌনকায় সুধাকর । মাণ্ডব্য বামদেবাভ্যাং বশিষ্ঠো যং পুরাতনম ৷ নারায়ণো বশিষ্ঠায় রামেশায়াপিচোক্তবান। বাসঃ শিষ্যায় সূর্য্যোহপি ময়ারুণরুতে স্মৃটিম ৷ পুলস্তাচাৰ্য্য গর্গাত্রি রোমকাদিভিরীরিতম। ইত্যাদি। এইরূপে আমরা অষ্টাদশ মহৰ্ষিকে জ্যোতিষশাস্ত্রের প্ৰবৰ্ত্তক বলিয়া জানিতে পারি।