প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অনাথবন্ধু.pdf/৬৬২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


. 8Nტo সম্বোধন করিয়াছিলেন। মাধবাচাৰ্য্যও শূদ্ৰ ( শুচি + দ্র) अcofcय cशांक अौडूड श्न, qछे अर्थ कब्रिग्रांछन। cवहांखসুত্ৰকার ভগবান বেদব্যাসও উক্ত উপনিষদের কথা তুলিয়া “পূদ্র” শব্দে শোকে দ্রবীভূত অর্থ করিয়াছেন। ইহার উপর আর আমাদের আলোচনা করা চলে না । ব্ৰহ্মাণ্ডপুরাণকার শূদ্র শব্দের ঐ রূপ অর্থ গ্ৰহণ করিয়াGRo, ኞqስ শোচন্তশ্চ দ্রবন্তশ্চ পরিচর্য্যাসু যে রত্যাঃ । নিস্তেজসোেহল্পবীৰ্য্যাশ্চ শূদ্রাস্তানব্ৰবীৎ তু সঃ ॥ যাহারা শোক-দুঃখে মুহমান, নিস্তেজ, অল্পবীৰ্য্য এবং অন্যজাতির পরিচর্য্যায় রত হইল, ভগবান ব্ৰহ্মা তাহাদিগকে শূদ্র বলিয়াছিলেন। এখন জিজ্ঞাস্য, এই দুই বাখ্যার মধ্যে কোন বিরোধ আছে কি ? একটু চিন্তা করিয়া দেখিলে বুঝা যাইবে যে, উহাদের পরস্পরের মধ্যে কোন বিরোধ নাই। যাহারা ভুতসংকামী অর্থাৎ পার্থিবব্যাপারে অত্যন্ত সংলিপ্ত, যাহারা পার্থিবব্যাপার ভিন্ন অন্য কিছুই বুঝে না, তাহারাই শোকে অধিক অভিভূত হয়। যাহারা পরীকালে ও কৰ্ম্মফলে বিশ্বাস না করে, তাহারা সামান্য ক্ষতিতেই শোকে আপনহারা হয় । সুতরাং দুই কথায় বিশেষ বিরোধ নাই । BDBBBBD SBBBB DBDBDBDBD BBD DDBDY D DDDDD উদ্ধৃত হইয়াছে, তাহাতে উক্ত হইয়াছে যে, যে সকল ব্ৰাহ্মণ হিংসাপ্রিয়, মিথ্যাবাদী, লোভী, যাহারা সৰ্ব্বকাৰ্য্যে রত অর্থাৎ যাহাদের আকরণীয় কিছুই নাই, যাহারা অশুচি ও তমোগুণ প্রধান হইল, তাহারাই শূদ্র হইল। এইখানে এক কাণ্ড হইতে চারিবর্ণরূপ চারি শাখা উদ্ধৃত হইয়াছে, কথিত হইয়াছে। ঋগ্বেদ, অথৰ্ববেদ, বাজাসেনেয়। সংহিতা, তৈক্তিরিয় সংহিতা প্রভৃতি বৈদিক শাস্ত্রে একই বিরাট পুরুষ বা প্রজাপতি হইতে চারিবর্ণের উদ্ভাবকীৰ্ত্তিও হইয়াছে। মনু প্রভৃতির স্মৃতি, সমস্ত পুরাণ ঐ উক্তিরই প্ৰতিধ্বনি করিয়াছেন। সুতরাং তৈত্তিরিয়া ব্ৰাহ্মণে লিখিত হইয়াছে যে, उांक्षींश|| ठेवा अर्थ९ ८दनष्ठव स्रांद्र भूझ११ ग्रांश्ॉी अर्थी९ অসুরসম্ভব, ইহার অর্থ ব্ৰাহ্মণগণ দেবগণের ও শূদ্রগণ অসুরগণের সন্ততি তাহা নহে, পরন্তু ব্ৰাহ্মণগণ দেবভাব লইয়া এবং শূদ্রগণ অসুরের ভাব লইয়া জন্মগ্রহণ করিয়াছেন। উক্ত ব্ৰাহ্মণেই অন্যত্র উক্ত হইয়াছে যে, শূদ্ৰগণ অসৎ বা অসাধু হইতে জন্মিয়াছেন। আসল কথা, সমাজের মধ্যে যাহারা তামসিক, তাহারাই শূদ্র বলিয়া গণ্য হইয়াছিল। • এই অর্থ গ্ৰহণ করিলে শাস্ত্রবাক্যের সর্বত্রই সঙ্গতি রক্ষিত হয়। সুতরাং এই অর্থই হিন্দুর গ্ৰাহ । - কেহ কেহ বলেন, শূদ্র যে দাসশব্দ উপাধিরূপে ব্যবহার করে, তাহ দম্য শব্দের অপভ্রংশ, দম্য অর্থে অনাৰ্য্য। অনাথবন্ধু। [ প্ৰথম বর্ষ, কান্তন, ১৩২৩ । ঋষিরা দমুশব্দে ঠিক অনাৰ্য্যজাতি বুঝিতেন না। আৰ্যজাতির মধ্যে র্যাহারা আৰ্য্যোচিত ক্রিয়াকৰ্ম্ম করিতেন না, BBDDLD DLB BDDBDDBBBBSS DDD DBDtDBDS মুখবাহুরুপাজানাং যা লোকে জাতিয়ো বহিঃ । মেচ্ছবাচশচাৰ্য্য বাচঃ সর্বে তে দস্তাবঃ স্থতাঃ ॥ ব্ৰাহ্মণ, ক্ষত্রিয়, বৈশ্য, শূদ্ৰ—এই চারি জাতির মধ্যে ক্রিয়ালোপহেতু যাহারা জাতির বাহিরে অর্থাৎ বর্ণাশ্রমী সমাজের বাহিরে যাইয়া পড়িত, তাহারা সাধুভাষীই হউক।

  • আর স্লেচ্ছভাষাভাষীই হউক, তাহারাই দত্ম্য নামে অভিহিত

হইত। সুতরাং শূদ্ররাই দমুর্ঘ্য নামে অভিহিত হইত না, শূদ্ৰাচার হইতে পরিভ্রষ্ট ব্যক্তিরা দলু নামে অভিহিত হইতেন। ব্ৰাহ্মণাদি উচ্চবর্ণত্রয় বৰ্ণাশ্রমী সমাজ হইতে বহিস্কৃত হইলে দাসু নাম পাইতেন । সুতরাং দস্য ও শূদ্ৰ এক নহে। শূদ্রের সেবাবৃত্তি বলিয়া তাহারা দাস নামে অভিহিত । দাসু্যা হহঁতে দাস শব্দের উদ্ভব হইয়াছে, ইহা थठ भ5 । এখন জিজ্ঞাস্য এই যে, শূদরা যদি আৰ্য্যজাতিই হইবে, তাহা হইলে ব্ৰাহ্মণাদি দ্বিজাতির শূদ্ৰকে একাসনে বসিতে দিতেন না কেন ? শূদ্ৰকর্তৃক স্পষ্ট হইলে আপনাদিগকে অশুচি মনে করিতেন কেন ? শূদ্র যদি ব্রাহ্মণের আসনে বসিত, তাহা হইলে তাহাদিগকে কঠোরাদণ্ডে দণ্ডিত করা হইত। কেন ? ইহার, কারণ, পূৰ্ব্বকালে শূদ্ৰগণ অত্যন্ত অশুচি, পাপাচারী ও হিংসাপরায়ণ ছিলেন। অশুচি, পাপ চারী লোকের সহিত মিশিলে যে ক্ষতি হয়, শৌচ-প্ৰবন্ধে তাহা পূৰ্ব্বেই বিশেষভাবে বলা হইয়াছে। কিন্তু তাই বলিয়া যে সকল শূদ্র শৌচাচারপরায়ণ ও ধাৰ্ম্মিক, ব্ৰাহ্মণগণও তঁহাদিগকে সন্মান করিবেন, ইহাই শাস্ত্রের আদেশ । ( যাজ্ঞবল্ক্য সংহিতা ১।১১ওঁ)। কেবল তাঁহাই নহে, শূদ্ৰ যদি সত্য, দান প্ৰভৃতি গুণযুক্ত হয়, তাহা হইলে সে প্ৰচ্ছন্ন ব্ৰাহ্মণ, ব্রাহ্মণ তুল্য সম্মানের অধিকারী হইত। হরিবংশে “শূদ্ৰাঃ ধূমবিকারতঃ” ধূম অর্থাৎ তমোগুণের বিকার হইতে শূদ্র উৎপত্তি হইয়াছে, একথা উক্ত হইয়াছে। মহাভারতের অনুশাসন পর্বে লিখিত হইয়াছে,- এভিস্তু কৰ্ম্মভিদোবি শুভৈরাচরিতৈস্তথা । শূদ্রো ব্ৰাহ্মণতং যাতি বৈশ্য ক্ষত্ৰিয়তাং ব্ৰজেৎ ৷ “এই সকল কৰ্ম্ম ও শুভ আচরণদ্বারা শূদ্ৰ ব্ৰাহ্মণত্ব পায়, বৈশ্য ক্ষত্ৰিয় হয়।” এই সকল বিধি-নিষেধ আলোচনা করিলে বেশ বুঝা যায় যে, ঐ সকল কঠোর ব্যবস্থা অত্যন্ত হীনকৰ্ম্ম, পাপাচারী, অশুচি ও হিংস্ৰ শূদ্রগণের উপর প্ৰযোজ্য ছিল। যাহারা জন্মতঃ ও গুণতঃ শূদ্র, তাহাদিগের প্ৰতি ঐ রূপ কঠোর ব্যবহার করা অনেক সময় নিতান্ত ब्रिकांब्र श्वां श्रद्ध।