প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অনাথবন্ধু.pdf/৬৮১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্ৰথম খণ্ড-নৱম সংখ্যা । ] কাজ LLL SDLDBD DBBDBDBS DDD DDD DBD DBBD DD লোকে বিশেষ পসন্দ করে না। জাপানী চিমনী খুব সস্তা, তবে যুদ্ধের পূর্বে উহার কাটুতি তেমন অধিক হয় নাই। এই যুদ্ধের সময় অষ্ট্রো-হাঙ্গেরী, বেলজিয়াম ও জাৰ্ম্মাণী इझेऊ चांभांनौ दश्का श्७iऊ उंझाव्र कांऐडि अडाख श्रुत्रेि পাইয়াছে। অষ্ট্ৰীয়ার কাচের গেলাস সকলেই পসন্দ করিতেন, তবে বেলজিয়ামের ও জাপানের গেলাসের কাটুতি নিতান্ত অল্প ছিল না। শেষোক্ত গেলাসগুলির भूला किछू अर्षिक, कि खु डेश एिक७ अक्षिक निन। জাৰ্ম্মােণীতে মজুরী অপেক্ষাকৃত সুলভ, সেই জন্য অনেক ইংরেজ কাচওয়ালারা জাৰ্ম্মণী হইতে কাচের দ্রব্য লইয়া আসিতেন। হিঙ্কস মার্কার যে চিমনী বাজারে বিক্রয় হইত, তাহা জাৰ্ম্মণীর সাক্সনীতেই প্ৰস্তুত হইত । ভারতে দুই প্ৰকার কাচের শিল্প বিদ্যমান । প্ৰথম উটজ শিল্প, দ্বিতীয় হলে আমলের কলকারখানায় শিল্প। টজ শিল্পী কেবল চুড়ী, বালা প্ৰভৃতি প্ৰস্তুতেই ব্যস্ত, অন্য DDDD DDD BtD SKBDBDB BDBBB uBD DSS DBDBDBD সৰ্ব্বত্রই এইরূপ কাচের উটজ শিল্প আছে। উটজ শিল্পে সাধারণতঃ সাদা বা রং-করা কাচের চুড়ী নিৰ্ম্মিত হয়, ঐ চুড়ীর উপর গালা দেওয়া থাকে ; টিনের নানারূপ পাত দিয়া উহাতে বৈচিত্ৰ্য সম্পাদন করা হয়। উহা অত্যন্ত KBDDSS BBB DDBD KBD DD DBS BBBD DDD টাকায় তিন হাজার পর্য্যন্ত বিকায় । সাধারণতঃ তিন হাজার গাছ চুড়ী এক টাকা হইতে চারি টাকা পৰ্য্যন্ত দরে বিক্রীত হইয়া থাকে। বিদেশ হইতে আমদানী চুড়ীর সহিত এ স্বদেশী উটজ শিল্পজাত চুড়ীর কোনরূপ প্রতিষোগিতা উপস্থিত হয় নাই। দেশের অত্যন্ত গরীব লোক রাই ঐ প্রকার স্বদেশী চুড়ী পরিয়া থাকে। তবে এই . স্বদেশী চুড়ীর অনেকটা উন্নতিসাধন করা যাইতে পারে। } আগ্রা জেলার ফিরোজাবাদের কাচের ও চুড়ীর কারবারের এইরূপ অনেকটা উন্নতি সাধিত হইয়াছে। ফেরোজাবাদে যুক্তপ্রদেশের সমস্ত কাচের কাজ হইত। সিভিলিয়ান শ্ৰীযুত অতুলচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় মহাশয় আন্দাজ করিয়াছেন যে, ১৯০৮ খৃষ্টাব্দে যুক্ত প্রদেশে দুই লক্ষ মণ মোটা কাচের চুড়ী প্ৰভৃতি প্ৰস্তুত হইত। জিনিস আতি অল্পই প্ৰস্তুত হইত, কিন্তু ঐ অঞ্চলে প্রধানতঃ কাচের চুড়ী, বাল। প্রভৃতিই তৈয়ারী হইত। উক্ত চট্টোপাধ্যায় মহাশয় বলিয়াছেন যে, যাহারা এই কাচের কাজে কিছু কিছু মূলধন নিয়োগ করিয়াছে, তাহাঁদের অবস্থা বেশ সচ্ছল। তাহারা নূতন নূতন পদ্ধতি অবলম্বন করিতে প্ৰস্তুত আছে। চুড়ী প্রস্তুতকারীরা ইহার মধ্যে অনেক নূতন নূতন পদ্ধতি অবলম্বন করিয়াছে। মোটামুটি কাচের কাজ ভিন্ন ফিরোজপুর হইতে পঞ্চাশ মাইল দূরে চতুর্দিকে সমস্ত যায়গামধ্যে আনুমানিক পাচ শত কাচের ইহার মধো ফুকা কাচের । 8ዓሕ» Ap ـــــــ -ــــــــــــــــہ চুড়ী, বালা প্ৰস্তুতের চুল্পী বা উনান আছে, এবং উহাকে সৰ্বসাফল্যে দশ হাজার লোক খাটাইয়া খাইতেছে। চুড়ীর কারিগররা বেশ নুতন ভাবগ্ৰহণ করিতে পারে। তাহারা फूऔब्र आंन्क नृऊन छ९ ७ ब्र कब्रिष्ठ स्थांब्रष्ठ कब्रिांप्छ । তবে ঐ অঞ্চলে যে ভাবে চুড়ী প্ৰস্তুতের উনান প্ৰস্তুত হইয়া থাকে, তাহাতে কাঠকয়লা বেশী পুড়ে, অথচ যতটা উত্তাপ DDDS DBDBDBYSDB DDBK DD DS S BBDBDBBBBB L বদলাইতে না পারিলে আর বিদেশ হইতে আমদানী চুড়ীর সহিত ইহারা প্ৰতিযোগিতা করিতে পরিবে না। বর্তমানে অনুসন্ধানে জানা গিয়াছে যে, ফিরোজাবাদের কারিগররা উপযুক্ত পরামর্শদাতার অভাবে অনেক অসুবিধা ভোগ করিতেছে। কিছুকাল পূৰ্ব্বে অষ্ট্ৰীয়া হইতে যে বিশেষজ্ঞদিগকে আনা হইয়াছিল, তাহাদের দ্বারা কাজ সন্তোষজনক হয় নাই। জাৰ্ম্মণী হইতে রং আমদানী করা হইত, এখন রং লইয়া বড়ই অসুবিধা ঘটিতেছে। দেশীয় চুল্লীতে ফুকা বা কাচচূর্ণ হইতে মোটা কাচের জিনিস অনেক স্থানেই প্ৰস্তুত হইয়া থাকে। রেলওয়ে BgDuD DBD DDB DD BDBB BBD DBDD DD KKD করে । বীজানুর জেলার নাগিনা অঞ্চলে ঐ রূপ কাচের কারবার হইয়া থাকে। কিন্তু এই প্রকারে যে সমস্ত জিনিস প্রস্তুত হইয়া থাকে, তাহার পরিমাণ অতি অল্প। B KBDDB BB BD DBDD LL BKD DSS BD S DuD দোয়াত, গন্ধ দ্রব্যের শিশি, আলোর টেমি প্ৰভৃতিও উহাতে প্ৰস্তুত হইয়া থাকে। এইরূপে যে সমস্ত দ্রব্য প্ৰস্তুত হয়, তাহা বিদেশ হইতে আমদানী ভাল জিনিসের সহিত প্ৰতিযোগিতা করিতে পারে না । বিদেশ হইতে আমদানী অতি অপকৃষ্ট জিনিসের সহিত উহার সামান্য একটু প্ৰতিযোগিতা হইয়া থাকে । ভারতে উন্নত ধরণের কলকারখানার সাহায্যে কাচের কারবার প্রতিষ্ঠার ইতিহাস বিশেষ আশাপ্ৰদ, হয় নাই । ইহার পথে বাধা ও অনেক ঘটিয়াছে । বাঙ্গালার টিটাগড়ে পাইওনীয়ার গ্লাস ম্যানুফ্যাকটরিং কোম্পানী ১৮৯০ খৃষ্টাব্দে ও সোদপুরে বেঙ্গল গ্লাস কোম্পানী ১৮৯৮ অব্দে কাৰ্য্য আরব্ধ। BBDSSDuuDuDD BBDBBD BBDBDSuBBDL BBK D BDDDD এহং হাল আমলের বিজ্ঞানসন্মত চুল্লী প্ৰস্তুত করিয়া কাজ আরব্ধ করিয়াছিল। কিন্তু উহার প্রথমোক্তটি ১৮৯৯ gD D DDBBu uLqDSgBD DD DBD DDSS BtB gDBB DYS D DDD BuBuYDB DDS DBBB BB DBD বন্ধ হইয়া যায় । সম্প্রতি উহা আবার কার্যারম্ভ করিবে: শুনা গিয়াছিল। হাইদারাবাদে একটি কাচের কাজ gDJ DDD DD DBB BDD DBD S BBDBBD BBuD কাজের কর্তৃপক্ষ উহার কল প্ৰভৃতি খরিদ করিয়া লইয়াছেন।. দেরাদুনের রাজপুরে হিমালয়ান গ্লাস ফ্যাকটরী প্রতিষ্ঠিতৃ হইয়া তিন চারি বৎসর বেশ কাৰ্য চালাইয়াছিল,