প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অনাথবন্ধু.pdf/৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


. - a S LL LLLLLLLLS LS S L LLYSSS iiii SSSSSSS SSSL S L TTL S TS T SL S L S Aq q LLS Sq SSS リー ー・すず * "... - . -. . . . . . - ۔ ص* = - - 。。甲中山、下 -n. . . . 雷 品 ፩ h aw SAA ୧୫ تسمیہ 10 ܡܗܝ . :- • ذمة - . Y କ୍ଳିଟିଂ କୋର୍ଟ୍ #E ASKVYYSKY ' w ፴, ኳኛሣ ..ኛ ፐ..ብ (ሰህ (ኹ *s, * : up : ছিল - "শ" 7 گھرAلي r بہ o 熔 ዕሶ |- s aa SAA li 1 ዶ / ሶኳffi it, Ea . لي | || 11! || প্ৰথম বর্ষ । s Sg || Sli=ITS সন ১৩২৩ । ] | প্ৰথম সংখ্যা । নিবেদন । লীলামায়ের লীলায় এই বিশ্ব বিকাশ পাইয়াছে। এই বিশ্ব আমরা এই শ্রেণীর অনাপদিগের জন্য সেই সকল কথা সরল - বৈচিত্ৰ্যময় । সমতার মধ্যে ও এই বৈচিত্র্য বিস্ময়করভাবে বিরাজ করিতেছে। কিন্তু লীলামায়ের এমনই লীলা যে, অনাথত্বের মধ্যেও বিস্ময়কর বৈচিত্র্য বৰ্ত্তমান । ংসারে অনাথ অনেক ও অনেক প্রকারের । কৰ্ম্মজালে বদ্ধ হইয়া মানুষ নানারূপে অনাথ হয়। সকল অনাথের একমাত্র শরণ সেই অনাথশরণ । তাই তাহার। আর একটি নাম অনাথবন্ধু। এই “অনাথবন্ধু”র উদ্দেশ্যবিবৃতির সময় আমরা সেই অনাথবন্ধুর চরণে কোটি কোটি প্ৰণাম করিতেছি। সংসারে প্রথম অনাথ,-যাহার আত্মবোধ নাই। যে মোহগৰ্ত্তে নিপতিত হইয়া আপনাকে ভুলিয়াছে ও সেই অনাথবন্ধুকে ভুলিয়াছে, সংসারের এই মোহজনিত ধূলাখেলা ফুরাইলে তাহার গতি কি হইবে, তাহা ভাবিতেও শিখে নাই, যে কেবল দুঃখে শোকে ডুবিয়া আছে, তাহার ন্যায় অনাথ আর কে আছে ? যাহাকে প্ৰাণ ভরিয়া ডাকিতে পারিলে নিদারুণ পুত্ৰকলাত্ৰশোকদগ্ধহৃদয়েও নন্দনের সুষমা ফুটিয়া উঠে, ক্ষুধাতুরের জঠর জ্বালাজনিত দুঃখেরও শান্তি হয়, সেই অনাথবন্ধুকে চিনাইয়া দিবার জন্য—সেই অনাথবন্ধুকে পাইবার পন্থা নির্দেশের জন্য আজ এই “অনাথবন্ধু”র লোকসমাজে আবির্ভাব। সাধকের হিতের জন্য হিন্দুশাস্ত্রে সেই দীনবন্ধুর অনেক মূৰ্ত্তি ও অনেক সাধনপদ্ধতি বিবৃত আছে। ভাবে বিবৃত করিব। ইহা ভিন্ন যোগশাস্ত্ৰ, নীতিশাস্ত্ৰ, ধৰ্ম্মশাস্ত্ৰ প্ৰভৃতির সাধারণ কথা ও ইতাতে সকলের বোধগম্যভাষায় লিখিত হইবে । লোক যাহাতে সংসারে থাকিয়া সাধনপথে অগ্রসর হয়, “অনাথবন্ধু’তে তাতার বিশেষ ব্যবস্তা থাকিবে । এই হিসালে এই পত্ৰিকাখানি এই শ্ৰেণীর “অনাথবন্ধ” নাম সফল করিবার প্রয়াস পাইবে । দ্বিতীয় শ্রেণীর অনাথ-যাহারা সাংসারিক হিসাবে জ্ঞানহীন । বৰ্ত্তমান সময়ে চারিদিকেই পার্থিবিজ্ঞান বিস্তারলাভ করিতেছে। বিদ্যা বা জ্ঞান ব্যতীত সংসারে এখন আর চলিবার উপায় নাই। কিন্তু আমরা আপনাকে যতই জ্ঞানী মনে করি না কেন, প্ৰকৃতপক্ষে আমাদের জ্ঞান অত্যন্ত সঙ্কীর্ণ ও সীমাবদ্ধ। আমরা দুই একটি বিষয়ে সামান্যমাত্র জ্ঞানলাভ করিলেও শত বিষয়ে সম্পূর্ণ অজ্ঞান থাকি। এমন কি আমাদের মধ্যে র্যাহারা শিক্ষিত, তঁাতারাও আমাদের নেত্রপথের নিত্যপথিক তৃণ গুল্মদিগের গুণাগুণ অবগত নহেন। উহাদের গুণ জানিতে পারিলে সংসারের যে কত উপকার হয়, তাহার ইয়ত্ত করা যায় না। অনেক সময় সম্মুখে লতাগুল্মরূপে নানা ঔষধ থাকিতে আমরা বিনা ঔষধে প্ৰাণ হারাই। সুতরাং এই হিসাবে আমাদের ন্যায় অনাথ আর কে আছে ? এই শ্রেণীর অনাথাদিগের