পাতা:অনাথ আশ্রম - ক্ষীরোদপ্রসাদ বিদ্যাবিনোদ.pdf/১৯৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৫৪ - ২ ফুল অনুমতি দাও-তারপর ইচ্ছা যদি গুরু। আয় তবে ৰাও পলাইয়া । ( প্ৰণাম করণ) | কাছে আয়-ধর ধর ধর মহাভাগ! - গুরু। (স্বগত) সহোদরে দেখাইয়া । ধরহে প্ৰাণের প্রাণ করে ; হাতে হাতে - কোথায় লুকায়ে ছিলি অশ্বিনীকুমার ? : করিনু অৰ্পণ। অশ্রািজলে সিক্ত করি । যুগান্ধপে দেৱে দেখা-প্ৰাণের যাতনা ; বনবাসী ভিখারী রাজায়-অতি কষ্ট । রেখা-দেরে বচন সুধায় মুছে দেব- তুলেছিল যে দুটী লতায় ;-ভিখারীর | কবিরাজ ! / ! সেই দুটী সারবস ধনী-তোমাদের . বীণা। আমার’ত আছে পৃথীরাজ- করিনু অৰ্পণ । কাছে রেখ, সুখে রেখ, , তবে কেন আমিও যাব না বাৰা ? ভুলইয়া রেখা বালিকায়।-সংগোপনে । গুরু । বাবা । ] ; আছহে। যেমন-সংগোপনে সাজ দোহে । বৃদ্ধে কেন ছিলে লুকাইয়া ?-ওমা বীণে ! ; দিহু অনুমতি । ] তোদের কারণে সব তেয়াগিনু-মাগো ! ধোগধৰ্ম্মে দিয়ু জলাগুলি-তুই কি না৷ ” পঞ্চম দৃশ্য। চাতুরি খেলিলি মোর সনে ? দেখালি না। একদিন(ও) তোর ভগবানে । । নদীতীরস্থ কানন । বীণা ৷ দাস দাসী অসিহস্তে কমলা । নিত্য অপরাধ করে, প্ৰভু কি সকল কমলা। সকলকে দেখলেম-তোমাকে দোষ ধয়ে ? r ; দেখলেম না কেন প্ৰভু ? আজি যে তোমাকে । ४द्र । qदांडई शांत्रि ? 6छद 6तथल দেখবার জন্য প্ৰাণে আমার বড়ই আবেগ সমর প্রাঙ্গণ নয় কুসুম কানন, श्रश्नCछ -6क्न ठा छानि ना-च्याङ ८य তাতারী করক্ষিপ্ত শরবরষণ তোমায় একৰ।ার দেখা চাই-পর চিন্তায় বিভোল কদম্বফুলের নয় কেশৱ নিৰ্বর। অন্তরের সেই কি দেখিতে।-কি-দেখা নয়ন বীণা। একান্তই ধাৰ পিতা-প্রাণের যাতনা একবার না দেখলে যে দাসীর চোখের বার, সেকি অস্ত্রে ডরে ? শরবরষণ ; ঘোর ঘুচে না-সেই কি-বলিতে-কি-বলা তার কুসুম প্রহায় । দিদি রণাঙ্গণে বচন না শুনলে যে হৃদয়ের এ জালা নিবারণ বিধিবে শক্ররো বাণে, বাক্ষরক্ত দানে ; হরে না । হৃদয়েশ্বর ! একবার তোমাকে পিতৃরাজ্য লবে সংশোধিয়া, আর আমি দেখব।--স্বামী আমার সর্বদাই কাৰ্য্যে | ঘরে রব ? অশ্রািজলে খুঁয়ে ধুয়ে রাঙ্গা ; ব্যস্ত-মহারাজের জন্য উদ্বিগ্নচিত্ত হৃদয়-দেবতা পা দুখানি, ব'সে ব’সে মায়েরে জালাৰ ? ; ঘরে থেকেও প্রবাসী ; পৃথীরাজের নিকট । তা’ ত পারিব না-মরে যাব সেও ভাল, ; হ’তে আসা অবধি এক দিনের-একাদণ্ডের তা’ ত পারিব না। গুরুদেব ! রূণবিদ্যা ; জন্যও স্থির ন'ন -একদিনের জন্যও | শিখেছি বিখন, চক্ষুজল অবলার । । তার পদসেবা করতে পারলেম না-নিরাহার, । বল-এ কলঙ্ক রাখিব না। বিগতনিদ্র স্বামীর আমার চরণ ধুইয়ে দেবারও !