পাতা:অনাথ আশ্রম - ক্ষীরোদপ্রসাদ বিদ্যাবিনোদ.pdf/২৩৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


: - : ، . . ' .. .ܝ .“ .' *.هr . . . . . . . . . . r . . . . r সুবল। ব্যস্ত হ’য়ে না। ’ থাম, থাম। [ সঙ্গে কুটিলা আছে। নামেও যা, কাজেও তাই। কুটিলা পথের মাঝে আমাদের দেখলে কত কি কু-ভাববে। শ্ৰী রাধার লাঞ্ছনার শেষ থাকবে না। --এস সখা অন্তরালে যাই । । ( শ্ৰী রাধার প্রবেশ ) রাধা । কই আর ত দেখতে পাচ্ছিনা। । বৃন্দা ব'ল্লে শ্যামসুন্দর আমাকে দেখবার জন্য । পথের মাঝে আমার আশাপথ চেয়ে দাড়িয়ে আছে -আমার জন্য দাড়িয়ে আছে ! অভাগিনী রাধার প্রতি বিধাতা কি এতই 52 ? দাড়াইয়া তরুমূলে, আকুল করিল মোরে, ঈষৎ বঙ্কিম দিঠে চেয়ে । । ঘরে যেতে না লয় মন, যা’ক জাতি কুল ধন, চিকণ শ্যামের বালাই লয়ে ৷ অঙ্গ ভঙ্গিমা দেখি, প্ৰেম পূরিত আঁখি, মোর মনে আন নাহি ভায় । চিত নিবারিতে যদি, বিরলে বসিতে চাই, মন কেন শ্যাম পানে ধায় ৷ ( কুটিলার প্রবেশ ) কুটিলা । বলি ঠাকরুণ, পথ দেখে চল । রাধা । পথ দেখেই তা চ’লেছি। ঠাকুরবী! উহু হু পোড়া পথও কি এত এবড়ো খেবড়ো ! o কদম্বের অন্তরালে, প্রিয় সখা সুবলের হাত ধ’রে । হৃদয়-সর্বস্ব মুরলীধর-ওই যে আমার- ; চকণ কি 和, , রাধা । কই,-আর কেন দেখতে পাচ্ছি । । না ? না না, ওই যে, ওই যে-কেলি- | - . . . . কুটিলা । ছিড়িলে-অমন মতির হার! : -ওই যে আমার,-ওই যে আমার প্রাণময় | . . . . . | ফেল্পে ! বেশ, যেমন কাজ, তার ফল ভোগ । । अलप्रिं भव | कद । नि ছড়ান মু পায়। - ' আমি যে তোমার জন্য সব কাজ ফেলে মুক্ত। চুড়ার ফুলে, ” ভ্রমর বুলে, ” । 6ङ१छ् নয়নে চায় ॥ কুটিলা । চ’লতে চ’লতে আবার থমকে । দাঁড়ান হ’ল কেন ? দেখ বউ, স্পষ্ট কথা বলি। | বলি তোমার ব্যাপারখানা কি বল দেখি ? -- ! তোমার ভাবগতিক ত ভাল বুঝছি না। : রাধা। কেন ? কি ব্যাপার দেখলে । ঠাকুৱৰী ? কুটীলা । এর চেয়ে আবার কি ব্যাপার দেখতে হয় তাতো জানি না। যমুনার জলে । প’ড়লে ত একেবারে গা এলিয়ে দিয়ে ব’সলে, উঠতে আর চাও না । যদিও বা ডেকে ডেকে তুললুম, তা তীরে উঠে কাপড় নেঙড়াতে আর পা ঘ’সতে সুরু ক’বুলে। রাঙা-খুড়ী-ও DBD KESBDD DDB BBB DBkDB u DSJS তারপর এখন পথ চ’লাছ না। ত, যেন সব মাটী মাড়িয়ে চ’লছ । তুমি রাজার মেয়ে, ব’সে । তোমার দিন চ’লে যাবে। আমাদের ত আর নিজে ক’ৱে ক’ৰ্ম্মে না খেলে চ’লবে না। তা এমন ক’রে চ'ল্লে এবছরে ত আর বাড়ী পৌছনা श६ नl cझ९ एङ १ांशें । शुनि, त्रांऊंौ शांदांद्र মতলব আছে তা ? ? রাধা । এইত বাড়ীতেই চ’লেছি। ঠাকুরাকী ! . কুটিলা । একে কি পথ দেখে চলা বলে ? 1 : তোমাদের আশ্রয় ছাড়া আমার আর স্থান পথ দেখে চ'ল্লে কি চোখ চারিধারে ঘোরে ? কোথায় ? ঠাকুরবী ! ঠাকুরী ! সৰ্ব্বনাশ । | কুটিল। কি হ’ল আবার কি হ’ল ? : এই সবে দুদিন श्रृं'taछ, এরই মধ্যে ছিড়ে কর । নিজেই ব’সে বসে ছড়ান মুক্ত কুড়োও । ।