পাতা:অনাথ আশ্রম - ক্ষীরোদপ্রসাদ বিদ্যাবিনোদ.pdf/২৬৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


' .، ا . *i" ; . . . . . . . i." . ' ' . . . . . . . . . . . . . r . . . . . . . . . . . . . . . . . : . ዶ : غل . . . . . . . ". . . . . . ". . . . . : . . . .", . . . -', ... ' ... ." I. " թ.։ - . : |ኑ ነ ... , - S 略

  • T

ক্ষেম। কার নাক কাটিবি রে জনা ? ? জন। এই নলতের ক্ষেমা দিদি। বলছিলেম কি, এই ক্ষেমা দিদির নাকের মতন ক’রে কেটে' নাকটাকে মানান সই ক’রে নিয়ে আয়। তা ও যেতে চাচ্চে না । বলে ক্ষেমা দিদির দাঁত নেই ; মাষ্ঠীদে চেপে ধরবে, কাটবে । না-লাভের মধ্যে নাকট থেতলে যাবে। ক্ষেম। বলি হ্যা লা ! তোকে এই না খেয়ে না দেয়ে দুদকলা দিয়ে পুষ্কলুম কি ছোবল খাবার জন্যে ? ললিতা। তুই ওর কথা শুনিস কেন দিদি ! 8द्र १| vिभू शिम् क्वc5, ऊाहे कि १त्रहठ कि ka b ক্ষেম। তা এতক্ষণ আমায়ু বলিসনি রে হতভাগা ! বা নলতে একটু চোন, আর গোবর নিয়ে আয়। তাতে একটু ঘি, মধু আর সুচার আদার কুচি দিয়ে বেশ করে বেটে খাইয়ে দে,-এখনি সেরে যাবে এখন । জনা । ও ক্ষেমা দিদি ! তোর ওষুধের কি গুণ ! নাম করতেই রোগ যে পালাবার জন্য কণ্ঠায় এসে ঠেলা মারীচে -ক্ষেমা দিদি হােত পাত-হাত পাত-তোর হাতে বেটার রোগকে উগরে দিই। দুহাত দে ধ’রে চেপে মেরে ফেল। রোগের জড় ম’রে যাক । (সুকুমারীর ¢iርማሣ ! ) ক্ষেম। - ওরে পোড়ারমুখো করিস কিকরিস কি ? হাতে ব্যাথা-হাতে ব্যাথা । সুকু। বলি হঁয়া ক্ষেমা দিদি, এইকি তোর যেমন যাওয়া তেমনি আসা ? ? নড়বে না তা আমি কি করব ?-ওরে জন । আমাদের এখানে অতিথ আসবে, তুই ভাল । জনাকে । ७ां.ि-७ r• + . ' | চুরি না যায়, বুঝলি ? : , , সুকু। মরণ আর কি ? যা জনা বাইরে। বসে থাকগে। যদি কেউ আসে আমাকে । খবর দিবি। আর তুই এখনও ফুল তুলতে। যাসনি! এতিক্ষণ করছিলি কি ? : ললিতা । তাই ত আমি যাচ্চি ! ক্ষেম। শিগগির মূল তুলে আনা। তুই ! শিগগির জোরে বসগে-আমি শিগগির ঠাকুরদের নামটা জপ করে নিইগে। কেএখানে আসবে দিদিমণি ? জনা । সে শিগগির জানতে পারবি। এখন শিগগির জোরটা দেখিয়ে দিবি আয়। [ সুকুমারী ব্যতীত সকলের প্রস্থান । ( রামার প্রবেশ । ) সুকু। দেখারমা । পিতা আদেশ ক’রে | পাঠিয়েছেন যে, ঋষিসুগল যতদিন মর্ত্যে থাক! ৰেন, তত দিন :আমাদের- তাদের সেবা করতে হবে। আজ তারা আমাদের আশ্রমে পদাৰ্পণ করবেন। রমা। আসুন তাতে আপত্তি নেই, কিন্তু ভাই গতিক বড় ভাল ব’লে বোধ হচ্চে না । বড় ঠাকুরটীি তোর দিকে হঁ৷ ক’রে চেয়েছিল। সুকু। ওঁদের মধ্যে কে বড়, কে ছোট চিনলি কেমন করে ? ? রমা। ঐ যেটীৱ, হাতে কমণ্ডলু, কেঁাকতুন কেঁকড়ান চুল, টানাভুরু, পাগলাটে ধরণ, ওইটী বড়। আর যার মাথায় শোণের নড়ী, পেট পৰ্যন্ত দাঁড়ী, গায়ে মাংসের বুড়ী, ঐটী ছোট । বলি ঠাকুরকে দেখে তোর চোেখ । ১. সুকু ৷ যথার্থই বুম আমার চোখ বলসে