পাতা:অনাথ আশ্রম - ক্ষীরোদপ্রসাদ বিদ্যাবিনোদ.pdf/৩৫১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


. . . . . . . . . . . . * -፡ i 1: . r ܝ - ·禹 . . . . . . 患· .

  • ,凸 !, . ❖፡ ' ':

... ' ,,'ا ' ۔ ' ' : 'د . ' ' •, না পেরে হতগজ করে কাজ সেরে এসেছি। ! তুমি যে এখান থেকে সম্মোহন বাণ ছাড়ছ, ধীরে ধীরে আমার অজ্ঞাত সারে আমার বুদ্ধিকে অবশ্য করছ, তা ত বুঝতে পারিনি! - তাজ । এমন কি সমস্যার কথা জাহাপনা । যে, এতরাত্ৰি পৰ্য্যন্ত তর্ক ক’রেও তার মীমাংসা হ’ল না ? বাদী কি তা শোনবার অধিকার রাখে ? : আদিল । এই ষে বললুম। বিষম সমস্যা ) { আমেদনগর থেকে দূত এসেছিল। তাজ । কেন জাহাপন ? एल्लि । cश्लश्6न ऐठौ भिन्नशक्षू ऊद्र् এখলাস খাতে বিষম বিরোধ বেধেছে। ব্যাপার যা, তাতে বুঝলুম, বিনা রক্তপাতে সে বিবাদের মীমাংসা হবে না। মালোজী তাই সাহায্য চেয়ে আমাকে চিঠি লিখে পাঠিয়েছে। তাজ । তাদের আপনা। আপনির ভেতর বিবাদ-আপনি কি সাহায্য করবেন ? ? আদিল। দুই রকম মেটাবার উপায় আছে-এক অনুরোধী-আর এক ভয় প্রদর্শন। তাজ। আপনি কি উপায় অবলম্বন করতে চান ? ) আদিল । কি করব, স্থির না করতে পেরে । আমরা হামিদ খাঁর অধীনে একদল সৈন্য । পাঠিয়েছি। • . তাজ। ওই কাজটাই কি করলেন ? ) ب আদিল। হামিদ প্ৰথমে আমার এক পত্ৰ নিয়ে তাদের অনুরোধ করবে। অনুরোধে ফল না হয়, তখন বলপ্রয়োগ ! " | তাজ। পত্র যাবে কার কাছে ? : আদিল। অবশ্য দূত পত্র নিয়ে প্রথমে ভাল বিবেচনা রাজার কাছেই উপস্থিত হবে। রাজার মধ্যস্থতায় | মিটে যায়। ভালই-নইলে পচিশ হাজার। محله است. অশ্বারোহী বিদ্যুৎবেগে yাির্কবারে আমেদনগরে ৷ গিয়ে পড়বে। সেখানে মালোজীর মাওয়ালী । পড়েছে! এই সকল সৈন্য যখন রাজার পাশ্বে । ! গিয়ে দাড়াবে, তখন আর কেউ সেখানে । বিদ্রোহ তুলতে সাহস বীরবে না। তাজ । এত বড় বিষম ব্যাপার-মঙ্গুের - পরামর্শ একবার গ্রহণ করলেন না কেন ? আদিল । মায়ের কাছে পরামর্শ নেবার । হ’লে কি এতক্ষণ চুপ ক’রে থাকতুম ? এ তার পিতার রাজ্যের কথা। মায়ের তাতে একটা । | বিশেষ স্বাৰ্থ আছে। মা এতে কোন কথা । { কইতেন না। একবার অনুরোধ করেছিলুমদুই রাজ্যের ভেতর সদ্ভাব স্থাপনের জন্য, আমার ভগিনী মরিয়মকে ইব্রাহিমকে দান করতে একবার তিনি আমাকে অনুরোধ করেছিলেন। আমার ইচ্ছা না থাকলেও, দ্বিরুক্তি না ক’রে ! আমি মায়ের আজ্ঞা পালন করি। বিবাহে ভগিনী আমার সুখী হ’ল না । মরিয়ম আমার ; চেয়েও মায়ের প্রিয় ছিল-তুমি তাকে দেখনি । -সে কি কোমল, কি মধুর ! তাজ। আমি তাকে না দেখেই বুঝতে | পারছি জাহাপনা । এক বৃন্তের দুটী কুসুম, একটীকে আমি ভাগ্যের বশে দেখছি।-অপরটা এরই প্ৰতিবিম্ব স্বরূপ হয়ে আমার চোখে ফুটে । আদিল। তাজ ! সে কুসুম দুটী ফুটতে । না ফুটতে তাদের বৃন্ত করােল কাল কর্তৃক ছিন্ন । দুৰ্বল বুঝেই না। সরদারের উচ্ছঙ্খল হয়ে । i | হয়েছিল। ফুল দুটা মাটিতে পড়তে না পড়তে | এক করুণাময়ী করুণাঞ্চলে তাদের ধরে ফেলো- ? ছিলেন । সযতনে করুণাশ্রনিষেকে তাদের পুষ্ট । করেছিলেন। আমরা মায়ের অভাব যার সৈন্য তাদের সঙ্গে যোগ দেবে। রাজাকে .