পাতা:অনাথ আশ্রম - ক্ষীরোদপ্রসাদ বিদ্যাবিনোদ.pdf/৪৮৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩০ | হইয়াছিল যে, এরিয়েলের মত डेल्डि शहै। বেঞ্চ হইতে পড়িয়া, পায়ে একটু আঘাত | । नांदेशांछि। ‘ अडि नांभछि, बांgी साईड যাইতে সারিয়া যাইবে, আপনি অনুভব করিতে | পরিবেন না ! কাননিকা রমণীরত্ন,আজি তাঁহাকে । বাড়ীতে পড়িতে দিবেন না। বরং আপনার উস্তান হইতে একটি আধাফুটন্ত 'প্যানসী", তুলিয়া । লিখিতে হইবে (১) রাজকবি যদি প্রতিবাদ । করেন, তাহা হইলে পরের মেলে তঁহার কাছে। লাইট ব্রিগেডের চার্জ পঠাইয়া দিব ! দেখিব, টেনিসন কত শক্তিধর। কিন্তু কাননিকা ? - , ক্ষুদ্র হৃদয়খানিতে এত অনুভবশক্তি কোথা । হইতে আসিল ? টুলটুলে মুখখানিতে এতকথা-কুসুমরাশি কেমন করিয়া ধরল। কি কঠিনতা ! বৃদ্ধ মরণোন্মুখ টেনিসনের এক আজ। আপনার নাতিনী রাজকবি টেনি- { মাত্র আশ্রয়স্থল কবিপদ- তাই কি না। অম্লান সনের কবি উপাধি কাড়িয়া व्लट्टेग्नांcछ ! dठेन्निो- ! সনের “সুন্দরী রমণীর স্বপ্ন” হইতে সকল | বালিকাকে প্রশ্ন দিয়াছিলাম। সকলে প্রশ্নের } উত্তর করিয়াছিল ; কেবল ম্রিয়মান কাননিকা ডেবডেবে চক্ষু দুটিতে এক অঞ্জলি জল । পূরিয়া কপোলে করবিন্যাস করত টেবিলছিদ্রস্থ একটি ছারপোকার চতুরতা নিরীক্ষণ করিতেছিল। দেখিয়া সবিস্ময়ে জিজ্ঞাসা করিলাম, ‘কুমারী বাগভট ! তুমি কি ! আজ বাড়ীতে পড়িতে পার নাই?” { উত্তর পাইলাম-“ইচ্ছা করিয়া পড়ি । নাই। যে কবির সৌন্দৰ্য্যজ্ঞান নাই, তাহার কবিতা পড়িতে অভিলাষিণী নহি । আর তাহাঁকে কবি বলিয়া কবি-নামের মৰ্য্যাদা নষ্ট করিতে চাহি না । বঙ্গসুন্দরীর-শ্যামলতৃণক্ষেত্র অন্তঃপুরবিলাসিনী, যেন পিঞ্জরের বিহঙ্গিনী । বঙ্গসীমস্তিনীর স্বপ্ন আগে তাহার দেখা উচিত ; থাকিঃ ছিল।” কাননিকা সুন্দরী ; কাননিকা মৃদু- | আর বলিৰে হাসিনী, মধুং সৰ্ব্বদাই নেত্ৰে জল পূরিয়া রাখিয়াছে। তাহার | i 1 , ,".. ف, . ۰٫۰ تن “ . • г ... . . . . . . . . . A. : ... al-unika li imminimuma f'ith " ' i. i - -

. . . | :

". . . . . . L' . . . . ". , , , ,: የ ', ̇ :: ' . . . . . - - , , , ... ' 'i ". . . . · · ' “ጰ• W ·ሸ: , ';' , ' ! ' " ፡' ጆ.. ." မှ ဖွံ့ဖြုံ ့်ဖွံ့ၡ ف؛ ما . . . : . . . . . . . . - . . . . . স্বাভার্ষিণী, গজগামিনী ; কাননিকা | সমাজ, সমাজ বদনে কাড়িয়া লইল ! কি কোমলতা । বঙ্গ- | নারীর জন্য অকাতরে প্রাণভাণ্ডারে রাশি Y রাশি দীর্ঘশ্বাস ও সাগরপ্রমাণ চক্ষুজ্বল পুরিল। কাননিক নারী-কোলরিজ আভ্যন্তরিক কবি, । কাব্যভরা প্ৰাণ-শত সেক্ষপীর, সহস্ৰ ওয়ার্ডসওয়ার্থ, অযুত বায়ারণ, লক্ষ শেলীর প্রতিভা । লইয়া এই ক্ষুদ্র পাখীর প্রাণ রচিত হইয়াছে। সে প্ৰাণের মুখ ফুটাইতে ভাষায় কথা নাই। : কাজেই কবি নীরব-এ ফুল ফুটিতে ফুটিতে ফুটিবে না। : পেনসনভোগী নিরঞ্জন, দিন দিন এই রকম । রিপোর্টসুধা পান করিতে লাগিলেন, এবং : ষাড়ার্ষাড়ীয় বাণের ন্যায় জ্যামিতিক বৃদ্ধিতে । ফুলিতে লাগিলেন। তঁহার মুখ চক্‌ চক্ৰ, । বুক ঠক্‌ ঠক্‌, জিহবা লক লক্‌ করিতে লাগিল। তাহার দাঁত কড় কড়, হাত সড়সড়, গলা ঘড় । ঘড়ি, প্ৰাণ ধড়ফড় করিতে লাগিল। তিনি : (२) अडिन সমাজে আমেরিকার ওয়াশিংটন হইব। سا (২) মিনার্ভা-গ্রীকদিগের বিদ্যাধিষ্ঠাত্র ( ) श्श्व ! क्षैनिगुन बाद्र श्श्क्श्रटुङ बारे । . . & ,

اما , , , ' ' '.

- . ..