পাতা:অনাথ আশ্রম - ক্ষীরোদপ্রসাদ বিদ্যাবিনোদ.pdf/৪৮৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উইলো এমন সময়ে তারে স্থান দিল না। শাখা

  • . . r - ' ' ? : '.' ; . . " " ... هم اس- ۰ و . . . - . . .

. . . . ,。°, { ཚ क्ल fiଗ श्रृङ्नश्नग्धं ਲੁਜ পরিবেষ্টিত নিরঞ্জন টেনিস খেলিতেছিলেন। { চেয়ারে বসিয়া খেলা দেখিতেছিলেন ও একটি । গোলাপ ফুলের বৃন্ত ধরিয়া ঘুৱাইতেছিলেন। । বকুল গাছের ফুল আপনা-আপনি ঝরিতেছিল, ক্রোটনের পাতা আপনা-আপনি নড়িতেছিল, { ফুলরেণু চারি ধারে উড়িতেছিল, টেনিস বল ; दाॉं श्रेष्ठ दाङ्ग्द्रि शाँटेडछिन, कश्न ब| | জালে আবদ্ধ হইতেছিল, কখন মাটিতে গড়াগড়ি | খাইতেছিল। এমন সময় কোথা হইতে ! কপোত কপোতী উড়িয়া আসিয়া নিরঞ্জনের পাদমূলে পতিত হইল। সকলে চমকিত হইল, আর ঠিক সেই সময়ে বিস্ময়ান্বিতা কোন এক | রমণীর করনিক্ষিপ্ত টেনিসখল, কপোতের ঘাড়ে । পড়িয়া তার প্রাণ বাহির করিল। সশব্দ পক্ষ- { পূটে হৃদয়ের কাতরতা জানাইয়া কপোতা নিকটের উইলো তরু শিরে উঠিয়া বসিল। নিৰ্ম্মম | । नड कब्रिा शनिग्रां शनिद्रा उांश छून कब्रिघ्र। দিল। রমণীকুল মধ্যে একটা দুঃখেব হাসির আবেশকর শব্দ উঠিল। আর কাননিকা । লিখিল। চেয়ার পড়িয়া সেই কথা সকলকে । আরো রে টেনিস বল । কপোতে বধিয়া ! / ! . ""- r আরো রে উইলো সখি, এ কি তোর কা কোমল হইয়া, : পতি-হারা কপোতীরে, দিলি কি না দূর করে! :

গোৱস্থানে তাই বুঝি থাকিস,
'
    • ." . r

क्षतनि १ióाशेम्न रुद्ध लद्देल ইজিচেয়ারে আনমনে কি একটা হিজিবিজি { । কােজ দেখি ?" | টেনিসের বল সনে চলে যালো লন্ডনে । | বঙ্গ তোরে নাহি চায়, যালো সেন্ট হেলেন巾, অথবা bलिश यांहला একেবারে কোরিয়া | | প্রজ্জ্বলিত খাপ যেমন আকাশমার্গে হুস । করিয়া উঠিয়া যায়, সনিরঞ্জনা যৈাষিন্মণ্ডলীর ' প্ৰাণ তেমনি সেই কবিতানলম্পর্শে মূহূৰ্ত্তমধ্যে - অনন্তের দিকে ছুটিয়া গেল ! কেরে ?-এ | প্ৰাণোন্মদিনী কাব্যকথা কে কহিল রে ? কঠি- “ নার পাথর প্রাণ দ্রব কে করিল রে ? বস-এই | পৰ্যন্ত! তার পর দীপনির্বাণ,-যেন কোথাও । কিছু হয় নাই। নিরঞ্জন ডাকিল, কাননিকে ! , ভামিনী বলিল, কাননি। মাতৃস্বস্যগণ উচ্চৈঃ- | স্বরে চীৎকার করিল, কানি । নিকুঞ্জবন প্রতিকানু। কই কোথায় কাননি ? সকলে দেখিল ইজিচেয়ার সুধু পড়িয়া আছে। নিরঞ্জন ভাবিল, এ কবিতা কি কাননিকরি ? অসম্ভব, অসম্ভব। কাননিকা যে বাঙ্গালা । লিখিতে পড়িতে জানে না। সে বাঙ্গলা কহিবার ভয়ে জাপানী শিখিয়াছে। তবে কি ইজিচেয়ার কবিতা আওড়াইল ! দূর হক্‌, আর ভাবিতে পারি না। ভাবিয়া এ প্ৰহেলিকার । আসিল। “সৰ্ব্বনাশ, কাননিকা আর পড়িতে চায় না। সে বলে, “যে ভাষায় মিথ্যার প্রশ্ৰয় । কি কাজ করিলি রে | দেওয়া হয়, সে ভাষা আমি আর পড়িব না, । যেমন করিয়া পারি, ভুলিয়া যাইব । রসনামূলে । ইচ্ছাপ্রহরিণীকে বসাইয়া রাখিব, সে আর একটিও ইংরাজী কথা মুখে আসিতে দিবে না ! যাহা মূৰ্থে বলে, অসভ্য বৰ্ব্বয়েও বলিতে পারে, এমন সৰ্ব্বজনবিদিত ইংরাজীও উচ্চারণ করিব । না। হাসপাতাল, বেঙাচি, চেহারা, ট্যারামাই ৷ বলিব, তবু হসপিটাল, বেঞ্চ, চেয়ার) ।