পাতা:অনুরাধা - শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.pdf/১২২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অনুরাধা। কান্নার শব্দে বাটীর সকলে আসিয়াই পৌছিলেন । মোক্ষদা। বলিল, দুধে জল দিয়েছি বলে বড়বাৰু লাথি মেরে আমায় গর্ভে ফেলে দিয়েছেন । হরিচরণ কহিল কে কে ? দাদা ? যাঃপরেশ বলিল, জ্যাঠামশাই ? মিথ্যে কথা । ছোট গিল্পী কহিলেন, বঠ ঠাকুর দিয়েছেন মেয়ে-মানুষের গায়ে হাত ? তুই কি স্বপ্ন দেখচিস গয়লা-মেয়ে ? সে গায়ের কাদা মাটি দেখাইয়া ঠাকুর দেবতার দিব্য করিয়া বলিল, ঘটনা সত্য। ইনাংশনের কৃপায় প্রাচীর তোলা বন্ধ হইয়াছিল বটে, কিন্তু উঠানের গৰ্ত্ত গুলা তেমনিই ছিল,--বুজান হয় নাই। গুরুচরণ লাথি মারায় ইহারই মধ্যে মোক্ষদা পড়িয়া গিয়া আহত হইয়াছে। হরিচরণ কহিল, চল আমার সঙ্গে নালিশ করে দিবি । গৃহিণী কহিলেন, কি যে অসম্ভব বল তুমি। বঠ ঠাকুর মেয়ে মানুষের গায়ে হাত দেবেন। কি! মিছে কথা। পরেশ স্তব্ধ হইয়া দাড়াইয়া রহিল, একটা কথাও বলি; না । হরিচরণ কহিল, মিছে হয় ফেঁসে যাবে। কিন্তু দাদার মুখ DBD Y BtBD DBDDBB DS SBBD DBDD LLLD DBDS যুক্তি ও শুনিয়া গৃহিণীর সুবুদ্ধি আসিল, কছিলেন, সে ঠিক। নিয়ে গিয়ে নালিশ করিয়েই দাও । ঠিক সাজা হয়ে যাবে। Sr.