পাতা:অনুরাধা - শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.pdf/৮৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অনুরাধা। দাড়াইয়া শুধু তাহার মনে হইতে লাগিল, পৃথিবী দ্বিধা হওনা কিসের জন্য ? লজ্জায় ঘূণায় ক্ৰোধে সেদিন হরিশ সেই ঘরেই স্তব্ধ হইয়া রহিল, আদালতে বাহির হইবার কথা ভাবিতেও পারিল না । মধ্যাহ্নে উমা আসিয়া বহু সাধ্য সাধনা এবং মাথার দিব্য দিয়া কিছু খাওয়াইয়া গেল। সন্ধ্যার প্রাক্কালে বামুন ঠাকুর রূপার বাটীতে করিয়া খানিকটা জল আনিয়া পায়ের কাছে রাখিল । হরিশের প্রথমে ইচ্ছা হইল লাথি মারিয়া ফেলিয়া দেয়, কিন্তু আত্মসম্বরণ করিয়া আজও পায়ের বুড়া আঙুলটা ডুবাইয়া দিল । স্বামীর পাদোদক পান না করিয়া নিৰ্ম্মলা কোন দিন জল স্পর্শ কৱিত না । রাত্রে বাহিরের ঘয়ে একাকী শয়ন করিয়া হরিশ ভাবিতেছিল তাহার এই দুঃখময় দুর্ভর জীবনের অবসান হইবে কবে ? এমুনি অনেকদিন অনেক রকমেই ভাবিয়াছে কিন্তু তাহার এই সতী স্ত্রীর একনিষ্ঠ পতিপ্রেমের সুদুঃসহ নাগপাশের বঁাধন হইতে মুক্তির cकन १थई उiश्i gbigo *ए नांछे । ኳ”8