প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অন্ধকারের আফ্রিকা.djvu/১০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


টাংগার পথে ছিল তারাও নানা কথা বলে বেশ আনন্দ উপভােগ করছিল। এখানে দুটি সভ্যতার সংমিশ্রণ হয়েছে দেখতে পেলাম; আরব সভ্যতা এবং ইউরোপীয় সভ্যতা। আরব সভ্যতা মতে স্ত্রীলোককে কোণ ঠোস করা, আর ইউরোপীয় সভ্যতা মতে স্ত্রীলোকদের ক্ষমতা দেওয়া। এখানে স্ত্রীলোকগণ কোণ ঠেসা হয় নি। তবে বিচ্ছিন্ন হয়েছে। স্ত্রীলোকের স্বাধীনতা আছে, তবে পুরুষের এক সংগে নয়, পৃথক उ} ! এ অনুচলের লোকের ভাষা সোহেলী । সোহেলী ভাষাতে এতই আরবী শব্দ রয়েছে যে, যারা আরবী ভাষা অবগত আছে তারা অতি সহজে সোহেলী ভাষা বুঝতে পারে। সোহেলী ভাষা সর্বত্র সমান ভাবে প্ৰচলিত নয়। কোথাও নিগ্রো শব্দ কম আর কোথাও নিগ্রো শব্দ বেশি, এই যা পার্থক্য। বাস্তুদের কাছে শুনেছিলাম, বর্তমানে সাহেলী ভাষার রকম বদলে গেছে। নতুন ছাচে ভাষার গড়ন হচ্ছে । দৈনন্দিন কাজ চলার জন্য যে সকল শব্দের দরকার সে গন্ধগুলি সোহেলী ভাষাতেই রয়েছে। সেই শব্দগুলিকেই শিক্ষিত নগ্রোরা তাদের নিজের ভাষায় ব্যবহার করছে। এ বিষয়ে পুরাতন মতাবলম্বীরা অনেকেই বাদ সাধছে, কিন্তু আফ্রিকার পুরাতন অন্য {য়ণের । বেঁচে থাকবার অধিকার তাদের নাই। এতে কাজের অনেক সুবিধা হয়েছে। " সোহেলী ভাষার একটি বাহাদুরী আছে, সেই বাহাদুরীট গুরু কেপটাউন হতে কাইরো পর্যন্ত গ্ৰাম্য ভাষার ধাতু fকই ধরণের। বিদেশী ভাষা নিগ্রোদের শুধু বিচ্ছিন্ন করেছে। আফ্রিকাতে মিশনারীরা সেই বিচ্ছিন্ন অংশটাকেই “ভাষায় অনেক সুভূত দেখিয়ে দিয়ে অনেকগুলি ছােট খাট ভাষার স্বষ্টি করেছন।