প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অন্ধকারের আফ্রিকা.djvu/১৩১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


No অন্ধকারের আফ্রিকা হল একটি রেল স্টেটসন। পোর্ট-হেরল্ড হতে অস্তত পক্ষে দুশ भाशेण পূর্বে ভারত মহাসাগর অবস্থিত । এখন যদি এই স্থানটির নাম কেউ মানচিত্রে সাগর তীরে অন্বেষণ করেন তবে নিশ্চয়ই বিফল মনোরথ হবেন । অথচ এই স্থানটির চমকপ্ৰদ কাহিনী আমার না বললেও চলে না । যারা মনে করেন, ভ্ৰমণ-কাহিনী, উপন্যাস জাতীয় বই তারা দয়া করে আর ভুল করবেন না । এতে উপন্যাসের কিছুই নেই। এত হায় আপৗসুস করারও কিছু নেই। ভ্ৰমণকাহিনীতে কথ-শিল্পেরও বিকাশ হয় না। এসব জেনে শুনে ভ্ৰমণকাহিনীতে চোখ বুলানো উচিত । যদি কেউ দয়া করে বেশ ভাল মানচিত্র এমন কি ওটােমেবিল মানচিত্র খুলেন তবে দেখতে পাবেন লিমবী হতে পোর্ট-হেরল্ড পর্যন্ত বেশ সুন্দর রেললাইনের চিহ্ন দেওয়া আছে। তা কিন্তু ঠিক নয়, এখনও এই পথটাতে রেললাইন বসানো হয়নি। কখন যে হ"ে তাও বলা কষ্টকর । আমরা যদি কাগজেপত্রে মিথ্যা কথা ল’ ”, তবে যাদের দ্বারা গভর্ণমেণ্ট পরিচালিত হয় তারা আমাদের শাস্তি দেবার বন্দোবস্তু করেন, কিন্তু তঁরা যখন সেরূপ কিছু করেন তখন তঁদের পক্ষে শাস্তি পেতে হয় না, ভুল হয়েছে বলে স্বীকারও করেন না । এর চেয়ে আশ্চর্যের বিষয় আর কি হতে পারে। লিম্বী হতে পোর্ট-হেরল্ড পৰ্যন্ত পথটুকু পর্বতময় এবং ক্রমেই পোর্ট হেরল্ডর দিকে ঢালু। পথের দুপাশে বন্য জীবের বাসস্থান । পথ চলতে চলতে দেখলাম একটা সিংহ তনয় আমাকে দেখে হাসুছে এবং তারপরই সে মাটিতে বেশ গড়াগড়ি দিতে • থাকে। সিংহ তনয়ের আমার প্রতি এরূপ উপহাস আমার মোটেই ভাল লাগছিল। না। সেদিন শরীর এবং মনের অবস্থাও খারাপ ছিল। সিংহ তনয়র্কে।