প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অন্ধকারের আফ্রিকা.djvu/১৪৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৩৮ n * অন্ধকারের আফ্রিকা নাম না জানু পথটি পরিত্যাগ করে যখন ঘরে আসলাম তখন બૂનિધિષ્ઠિ ইউরোপীয়ান লোকটি আমার কাছে এসে বললেন “মুশাহ আপনি আমাকে ভুল করে সমীহ করে চলবেন না, আমিও একজন নিগ্ৰো । এদেশে আমার যে অধিকার একজন কুচকুচে কালো লোকেরও সেই অধিকার। আমার জন্ম হল “সেণ্ট হেলেনা”, হালে আমি এদেশে এসেছি। লোকটির কথা শুনে আমার বিশ্বাস হল না, সেজন্য লস্মনামের বাড়িতে দৌড়াতে হয়েছিল। লসূমনীম্ বলেছিলেন “স্থা সত্যিই লোকটি শ্বেতকায় নয়, তবে সেণ্টহেলেনাতে শ্বেতকায়দের শরীরে সীমান্য নিগ্রো রক্ত থাকার জন্য নিগ্রোঙ্গের মতই ব্যবহার পেয়ে থােক। এ যে দমিত মন । এ মনে আগুন ধরিয়ে দিতে হবে, জলবে বেশ। শুধু নিজে প্ৰজ্বলিত হবে না, যে দিকে যাবে সেদিকেই আলো করে চলবে। এই ভেবে আমি তার সংগে বন্ধুত্ব স্থাপন করতে প্ৰয়াসী হলাম। যারাই দমিত, পদদলিত তারাই নাচ-গানহল্লা নিয়ে সময় কাটাতে চায়। শুধু তাই নয়, কাম রিপুর এয়াই হয় পয়লা নম্বর উপাসক । আমি ঠিক করলাম, এর মনে DB LBuBuB LEBSDBD DBLBD DS DB SDBDDD DDBD BBDB BBDBD DuD uDD DDD SS KKE BDB DB DDB BDBBDB BD DBuBBDB গেলাম। ফিরে আসার পথে পর্তুগীজ পূৰ্ব-আফ্রিকায় উত্তম সুরাও পান করতে ডুলিনি। তারপর ঘরে এসে রাত তিনটা পৰ্যন্ত ** দেশবিদেশের গল্পে লোকটাকে মাতিয়ে রাখতাম। যারা একটু সচেতন, এবং বেপরোয়া তাদের মনে উচ্চ আশা থাকে এবং আগুন ধরে অতি সত্বর । ড্যানিয়েল সে জাতীয় লোক। কিন্তু সে কোন পথে যাবে ? সাদা না কালো। সাদা পথে পুঁজিবাদীর ধামাৰাংশ