প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অন্ধকারের আফ্রিকা.djvu/১৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ye অন্ধকারের আফ্রিকা গ্ৰীক এসে আমার কাছে দাঁড়াতে তারু তাদের কাছে গত রাতের -কথা বলল। গ্ৰীকগণ হেসে বললেন, “এক ঘূর্ণিত অন্য ঘুণিতকে ঘূণা করে ” এবং সে কথাটা বার বার যখন ইণ্ডিয়ানদের সামনেই গ্রীকরা বলল, তখন একজন স্কুল-মাষ্টার আমাকে জাগিয়ে ধরমশালায় যেতে বললেন। আমি গত রাত্রের কথা তাকে বলায় তিনি আমার হাত ধরে একরূপ টেনেই ধরমশালায় নিরে গেলেন। ধ্রুরমশালায় গিয়ে আমি ফের ঘুমিয়ে পড়লাম। তারু পাক যাসাল, অন্যান্য তিন জন আমার কাপড় পরিষ্কার করতে লাগল। সেদিনই বেলা দুটায় সময় একটি বিদ্যালয়ে লেকচার দিলাম। বিদ্যালয়ে শুধু ভারতবাসীরাই প্ৰবেশ করতে পারত। ইউরোপীয়রা ঘুণ ক’রে সেই বিদ্যালয়ে যেত না। আর নিগ্রোদের বিদ্যালয়ে SBBDK BDDDD DDS DBD Dt S SBDODS DDSKDSDD BB DBBD বললাম “যে সকল নিগ্রো ভিড় করে দাড়িয়ে আছে তাদেরও বসতে দেওয়া হোক।” শিক্ষক মহাশয় আমার কথায় রাজি হলেন এবং নিগ্রোদের বসতে বললেন। হিন্দুস্থানীতেই আমার বা হ্রদব্য বিষয় বলেছিলাম। দেখলাম অনেক নিগ্ৰেী হিন্দুস্থানী বেশ বুঝে। লেকচারের শেষে একজন নিগ্রোকে ডেকে এনে আমার কাছে দাড় করালাম এবং বললাম, “আমি যা বলেছি তাই তুমি সোহেলীতে তোমার জাতভাইদের কাছে বলে ফেলি।” এতে লোকটি রাজি হল এবং আমি যা বলেছিলাম তাই প্রায় আধা ঘণ্টােব্যাপী বল্ল। তার দুভাষীর কাজ দেখে আমার বেশ আনন্দ হয়েছিল। লেকচার দেওয়া হয়ে গেলে আমার মজুরি গ্ৰহণ করলাম এবং ফের ধরমশালায় 5एल (5वांभ । সেদিনই বিকালবেলা একজন ভাটিয়ার সংগে আমার সাক্ষাৎ হয়।