প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অন্ধকারের আফ্রিকা.djvu/২৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


羽 জানজিবার ს აწა রয়েছে। জল অব্যবহাৰ্য । অনেকক্ষণ বসে জলের ওপারে কি আছে লক্ষ্য করে দেখলাম, যা আছে তা শুধু পাখির আর জল আর কিছুই নাই। আর যদি কিছু থাকেই বা তবে তা আমার অজ্ঞাতে রয়েছে, সে সম্বন্ধ বাজে কথা বলে কোন লাভ নাই। গহবর থেকে বের হয়ে বিশুদ্ধ বায়ু পেয়ে মনে হল যেন নব জীবন পেয়েছি। গহ্বর দেখার পূরও আরবদের প্রতি আমার রাগ হল না, কারণ তখনকার দিনে নরহত্যা মামুলী কথা ছিল। আরবগণ হয়ত হাজার দশেক লোক গহ্বরে ফেলে মেরেছিল আর আমরা নিজেকে সভ্য বলে পরিচয় দিই অপরের যথাসর্বস্ব অপহরণ করে অপরকে পথে বসিয়ে, অকালে যমালয়ে পাঠিয়ে সুখে-স্বচ্ছন্দে বাস করি, উপরন্তু ধমকিম ও করি। • আমরা যে অনুপাতে অপরের উপর অনৰ্থক অত্যাচার করি আয়াবগণ তার শতাংশের এক-অংশও কয়ে নি। আরব নিগ্রোদের আপন করে নিয়েছে আর আমরা আপন ভাইকে পদাঘাত করে বিধর্মী বলে, ছোট জাত বলে তাড়িয়ে দিচ্ছি। ত্ৰিপাটী যখন জিজ্ঞাসা করলেন-কেমন মনে হ’ল ? আমি বললাম, “আমরা হরিজনের প্রতি যে অত্যাচার করছি তার ! তুলনায় এটা কিছুই নয়। এটা দেখুক এসে আরব, আর ভাবুক তাদের { পূৰ্বপুরুষদের দুর্দান্ত উগ্ৰপ্ৰকৃতির কথা, গামাদের এটা দেখা দরকার নাই, আমাদের নিজের ক্ষত দেখাই দরকার ।” প্ৰকাণ্ড গহবরটা দেখা হল, তারপর যা দেখেছি সে সম্বন্ধে মন্তব্য করা হয়েছে, কিন্তু পরের দিন আবার একটা মহান কিছু দেখার জন্য নিমন্ত্রণ এল। সেটা কিন্তু বেশি দূরে নয়। বৃটিশ • ডিমক্রোসীর সবচেয়ে বড় আস্তানার কাছেই। মিউনিসিপালিটিই হল বৃটিশ ডিমক্রোসীর আরম্ভ আর এখানেই বোধ হয় শেষ। তারপর এস্ত্ৰে দেখা দেয় মাইনরিটি , আর মেজরিটি। মিউনিসিপালিটির