প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অন্ধকারের আফ্রিকা.djvu/৩৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


'S8 & অন্ধকারের আফ্রিকা একটা সভা কেৱল এবং তাদের কয়টি দুঃখের কথা আমাকে জানিয়ে তাদের কি করতে হবে তারা উপদেশ চাইল । জার্মান রাজত্বের সময় দ্বার-এ-সেলামের নিগ্রোরা রাতেও চলাফেরা করতে পারত। কিন্তু চুরি করত না, এমন কি যদি কেউ মানিব্যাগ পথে ফেলে যেত তাও চুরি করত না, বর্তমানে কিন্তু অবস্থার সমূহ পরিবর্তন হয়েছে। রাত্রে নিগ্রোরা শহরে থাকতে পায়ে না। সত্য কথা কিন্তু দিনের বেলা উৎশুঙ্খল ভাবে শহরে চলাফেরা করে এবং সুযোগ পেলে শহরের উপকণ্ঠে অত্যাচার করতেও কুষ্ঠিত হয় না। ইণ্ডিয়ানৱ জাতি হিসাবে শক্তের ভক্ত, নৱমেৱ প্ৰতি গরম এটা প্রায়ই দেখা ফুৰয় । যতদিন নিগ্রোদের উপর জাৰ্ম্মান প্রভাব ছিল ততদিন LL KBD BDDBSDBDDDDS S KBS SBOBB MDDS LSDD BDBBDS KD বৃটিশ প্রভাব পতিত হয়েছে। লোক আইনকানুন বেশ ভাল করে বুঝতে আরম্ভ করেছে। কোটে লোকের ভিড় হতে আরম্ভ হয়েছে। এদিকে যারা আইনের মার-পেচ খাটিয়ে দু’পয়সা অর্জন করতেন এবং আইন দেখিয়ে যাদের চোখ রাংগাতেন সেই আইনের কোথায় *ংক আছে তা অনেক নিগ্রে বুঝতে পেরে ছোটখাটো অত্যাচার করতে ভয় পাচ্ছে না। শান্তি-প্রিয় ভারতবাসী সেই অত্যাচার অবাধে সন্থ কয়ে যাচ্ছে। এরই প্ৰতিশোধরূপে ভারতবাসীরা “পিয়োর ইণ্ডিয়ান এসোসিয়েসন” করেছে। এতে বর্ণসঙ্করদের স্থান দেওয়া হয় না। সভাতে সকল কথা শুনে আমার মতামত আরও দু'দিন পরে দেব জানিয়ে সেদিনই টাংগ্ৰানিয়াক অপিনিয়নের সম্পাদকের সংগে সাক্ষাৎ করলাম। ভদ্রলোক একজন বিশিষ্ট শ্রেণীর ব্ৰাহ্মণ । তিনি পূর্বজন্মের ” কর্মফল বিশ্বাস করেন এবং বর্তমানে এখানে ভারতবাসীয় দুর্দশার কারণ তাদের পূর্বজন্মের পাপের ফলেই হয়েছে তাই বলে আমাকে সাদ্ভূনা দিয়ে