প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অন্ধকারের আফ্রিকা.djvu/৮৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


੧। s করবে জানি না, বড় দুঃখের সংগে বলছি, তাকে যদি তাঁর স্বামীর আয়ের উপর নির্ভর করতে হয় তবে সে বড়ই দুঃখিত হবে। সে মজবুত মেয়ে । ঘোড়ায় চড়তে পারে, বন্দুক চালাতে পারে, মাঠে কাজ করতে পারে, এবং এরই মাঝে সিনিয়র কেমব্রিজ পাসও করেছে।” হোটেল-গিন্নির চোখের জল দেখে আমার দুঃখ হল। আমি তঁাকে বললাম, “এরূপ • নির্যাতন সহ্য করতে হবেই, যে পৰ্যন্ত সাম্রাজ্যবাদীরা আমাদের বুকের উপর দাড়িয়ে তাণ্ডবলীলা করবে।” তঁর ছোট ছেলেটিও কাছে ছিল । এরই মধ্যে সাম্রাজ্যবাদ কাকে বলে সে জেনে নিয়েছে। সে আমাকে বলল, “আমি সাম্রাজ্যবাদীদের সংগে লড়াই করব। আমি জাতে ইংলিশ, যদি সাম্রাজ্যবাদী ইংলিশদের সংগে লড়াই করতে হয়, তাও করব। আমরা পৃথিবীতে সাম্যবাদ নিয়ে আসব” তারপরই তার মায়ের ফ্রকৃ ধরে একটা টান দিয়ে নিকটস্থ আপেল গাছে চড়াবার জন্য আদেশ চাইল । তার মা তাকে সেই কাজটি থেকে বিরত থাকতে বললেন । রাত্রে আমাদের নিয়ে অনেকগুলি ইউরোপীয়ান একই টেবিলে খেলা। কেউ আমাদের ঘৃণা করল না । সকলেই আমাদের সংগে করমর্দন করল এবং অনেকেই বলল এটাই হল আমাদের মিলন ক্ষেত্ৰ, এখানে বর্ণ-বিদ্বেষ নাই, এখানে আমরা সকলেই সমান, এটাই আমাদের “ক্যামূপেন”। বিছানায়ু, যখন শুয়ে পড়লাম, তখন ভাবতে লাগিলাম, আফ্রিকাতেও তবে মানুষের আগমন হয়েছে। ,সুকাল বেলাই আমরা উঠতে বাধ্য হলাম। "ফের আমরা খাবার টেবিলে গিয়ে বসলাম। খাবার খেয়ে পথে বের হবার পূর্বে একে অন্যে করমর্দন করলাম। বিদায়ের পর মনে হল যেন বন্ধুৰ্কে পথে স্কুল করে ফেলে এসেছি।