পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/৩২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“অন্ধকুপ-হত্যা-রহস্য নবাবের সৈন্যগণ উহার মধ্য দিয়া তাহাদের প্রতি গুলি চালায় নাই। এই পত্রে (৪র্থ পত্র) হলওপ্লেল আরও বলিয়াছেন যে, অন্ধকূপের উত্তাপ যখন তাহাদের অসহ্য হইয়া পড়িল, তখন গুলির আঘাতে প্রাণ হারাইবার জন্য তাহারা সৈন্যগণকে গালাগালি দিয়া উত্তেজিত করিবার চেষ্টা করিয়াছিল, কিন্তু তাহাতেও সফলকাম না হওয়ায় বন্দিগণ একে একে নীরবে চিরনিদ্রায় ঘুমাইয়া পড়িল। (১৫) মিঃ গ্রান্ট তাহার উপাখ্যানে বলেন “কেহ বলেন নবাবের সৈন্যগণ সমস্ত রাত্রি ধরিয়া তাহাদের প্রতি গুলি চালাইয়াছিল ; আবার কেহ ইহা অস্বীকারও করেন। (১৬) এই পত্রে (সাই এর পত্র) দেখা যাইতেছে, ১৬০ জন ব্যক্তি অন্ধকূপে অবরুদ্ধ হইয়াছে ; এবং এইরূপ হইবারই কথা, কারণ এ পর্যন্ত হলওয়েল সেইমত পোষণ করিয়াছিলেন। ৯। চন্দননগর হইতে ওয়াটস এবং কোলেট সাহেবের পত্র ইংলণ্ডের কোট অব ডিরেক্টরগণের নিকট প্রতি। ১৬ই জুলাই, ১৭৫৬। “.••••••••তাহারা কোম্পানীর কাগজপত্র অথবা মােগল সম্রাটগণ প্রদত্ত “ফরমান’ (হুকুমনামা) প্রভৃতি কিছুই রক্ষা করে নাই। ১৪৬ জন কর্মচারী ও সৈন্য প্রভৃতি সকলকেই নবাবের নিকট হাজির করা হইলে তিনি তাহাদিগকে ‘অন্ধকূপে আবদ্ধ করিয়া রাখিতে আদেশ দেন। • পর দিবস প্রভাতে দেখা গেল তাহাদের মধ্যে ১২৩ জন শ্বাসরুদ্ধ হইয়া প্রাণত্যাগ করিয়াছে। হলওয়েল, কোর্ট, ওয়ালকট, বারডে প্রভৃতি ব্যক্তিগণ বন্দী হইয়া মুর্শিদাবাদ অভিমুখে যাত্রা করিলে আমরা তাহাদের বিষয় কিছু জানিতে পারি নাই। আমাদের বিশ্বাস হয়, নবাবকে নগদ কিছু টাকা (১) Holwell's India Tracts : p. 3৪i ff and Hill: voint 2 (১৬) Capt. Grant's Narrative--Hill: vol. I, p. ৪৪ ર । ""