পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/৩৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


তৃতীয় পরিচ্ছেদ ইরিস, বেলি, কোল, ডাল্টন, জেংক, রিভেলি; ল্য, জেভ, কার, ভেলিকোর্ট, বেলামি, সিনিয়র, ড্রেক, বিং, ডালরিম্প, জনষ্টন, স্ত্রীট, ষ্টিফেন, এডওয়ার্ডপেজ, গ্রাব, ডড, টোরিয়ানন, ন্যাপটন, ব্যালার্ড, ক্লেটন, উইদারিংটন, বুকানান, লেঃ হেজ ( Hays ), সিম্পসন, ব্ল্যাগ, বিশপ, পেকার্ড, বেলামী, স্কট, ওয়েডারবান্••••••••••।” (১৯) কাহারও মতে গ্রে সাহেব কলিকাতা ও দুর্গের পতনের প্রাক্কালে পলায়ন করিয়া ছিলেন। তাহার বর্ণনায় দেখিতে পাওয়া যায় যে, অন্ধকূপে অবরুদ্ধ ১৪৬ জন বন্দীর মধ্যে ১২৩ জন প্রাণত্যাগ করে। ওয়াটস্ সাহেবের পত্রে জানা গিয়াছে-তিনি এই পত্ৰখানা ওয়াটস্ সাহেবের পত্রের সহিত ইংলণ্ড পাঠাইয়াছিলেন। ইহা হইতে বুঝা যায়—তিনি পত্র প্রেরণের সময় অর্থাৎ জুলাই মাসের মধ্যভাগে ওয়াটস সাহেবের নিকট উপস্থিত। ছিলেন। মিলস্ সাহেবের বর্ণনা হইতে আমরা জানিতে পারি, তিনি (গ্রে সাহেব ) জুন মাসের শেষ তারিখে কলিকাতা ত্যাগ করেন এবং তৎপর দিবস জাৰ্মানীর এমডেন কোম্পানীর ম্যানেজার ‘ইয়ং সাহেবের বাড়ীতে আশ্রয় গ্রহণ করেন এবং ২রা জুলাই তারিখে চন্দন নগরে উপস্থিত হ’ন ; এবং ৯ই আগষ্ট পর্যন্ত সেস্থানে অবস্থান করিয়া ১১ই তারিখে ফলতায় উপস্থিত হন। (২০) গ্রে সাহেবের পত্রে কোন তারিখ নাই, মাত্র জুন মাস লেখা আছে। ইহা হইতে বুঝা যায় পত্রখানি জুনমাসের শেষভাগেই লিখিত হইয়াছিল। এই সময় মিস্ সাহেবও তাহার নিকট উপস্থিত ছিলেন এবং মিলস্ সাহেবের বর্ণনার সহিত তাহার বর্ণনার যে বিশেষ সামঞ্জস্য আছে, তাহা পরে দেখান হইতেছে। (৯) Letter from Grey to some of his fiends in England. Hill: vol. 1, pp. io6iog | (২০) Hill: vol. I, p., 194, ২৯