পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/৩৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


. . . . . . । তৃতীয় পরিচ্ছেদ | “১৯ শে তারিখ বেলা ১০ টার সময় গভর্ণর (ডেক) ম্যাগট { ম্যাকেট)••••••• সেনাধ্যক্ষ মিনচিন, ক্যাপ্টেন গ্রান্ট, ক্রুটেনডেন, মেপলটপ্ট, সামনার, বিলার, রাইডার, টুক, সিনিয়র, এলি, ভেসমার, চালট, লিসেস্টার, ডাঃ ফুলারট ও'হারা, হুইদারবার, হিউ-বেইলি, রিজ, বােলডারি, •••••••••সামার, এলভেস্, লেঞ্জ, স্মিথ, হােয়েলি, লিং, হোয়াটমাের, বারনার্ড, এ, জ্যাকব, এফ চাইল্ড, কার প্রভৃতি ব্যক্তিগণ নৌকাযােগে পলায়ন করিলেন। | “রাত্রিযোগে একজন নিম্নপদস্থ সৈনিক কর্মচারী, কতকগুলি সাধারণ লােক এবং ডাচ, সৈন্যদের অধিকাংশই প্রাচীর উল্লঙ্ঘন পূর্বক পলায়ন করিয়া শত্রুপক্ষে যােগদান করিল••••••••• | “••••••••অপরাহ্ন ৪ টার সময় বিপক্ষগণ গুলি চালান হইতে নিরস্ত হইবার জন্য অনুরােধ জানাইলে গভর্ণর সাহেব যুদ্ধবিরতির পতাকা উত্তোলন করিলেন এবং গুলি চালাইতে নিষেধ করিলেন ; এই অবসরে অসংখ্য শত্রুসৈন্য আমাদের প্রাচীর নিম্নে সমবেত হইল। এবং দুর্গের দরজা ও জানালায় আগুন দিতে আরম্ভ করিল । কাপড় এবং তুলার গাঁইট সহকারে তাহা বন্ধ করিয়া দিলে, তাহার দরজা ভাঙ্গিয়া ও প্রাচীর উল্লম্বন করিয়া ভিতরে আসিতে লাগিল। “ইহাতে আমাদের মধ্যে মহাবিভ্রাটের সৃষ্টি হইল; এবং আমাদের মধ্যে কেহ কেহ গুপ্তদ্বার দিয়া নৌকাযোগে পলায়ন করিল। কেহ কেহ স্বংয় নবাবের কাছে গিয়া ক্ষমা ভিক্ষা করিল ••••••••.* “দুর্গাভ্যন্তরে মােট ১৫৪ জন নরনারী ও শিশুকে তিনি অন্ধকপে আবদ্ধ করিয়া রাখিলেন। একই সঙ্গে এতগুলি লােক একটা ক্ষুদ্ৰকক্ষে আবদ্ধ থাকায় গরমে ১২০ জনের অধিক লােকের প্রাণনাশ হয়। যাহারা প্রাণত্যাগ করিয়াছিল, নিম্নে তাহাদিগের কাহারও কাহারও ৩১