পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/৬৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“অন্ধকূপ-হত্যা”-রহস্য তৎপর ৩রা জানুয়ারী তারিখে ওয়ান সাহেব যে এক যুদ্ধ-ঘােষনার বিস্তৃত বিবরণ বাহির করিতেছেন, তাহাতে নবাব তাঁহাদের যে সব ক্ষতি করিয়াছেন তাহার সমস্তই উল্লেখ আছে কিন্তু অন্ধকূপে যে এতগুলি লোক প্রাণ হারাইল তাহার কোনই উল্লেখ নাই। (৬৮) ক্লাইও নবাবের নিকট ১৭ই ডিসেম্বর, ২৫শে ডিসেম্বর ও অন্য একখানি তারিখ বিহীন পত্র প্রেরণ করিয়াছেন কিন্তু তাহাতেও তিনি এ-ঘটনার কিছুই উল্লেখ করেন নাই। (৬৯) | যুদ্ধ-ঘােষণার পর ৯ই জানুয়ারী তারিখে ওয়াট ও ক্লাইব নবাবের সঙ্গে একটী সন্ধি করেন। তাহার একটি সৰ্তে লিখিত আছে “নবাব কর্তৃক অধিকৃত কোম্পানীর কুঠীগুলি কোম্পানীকে ফিরাইয়া দিতে হইবে। যে সব টাকা পয়সা, জিনিস পত্র ও অন্যান্য জিনিস নবাব কোম্পানীর কর্মচারী ও প্রজাবর্গের নিকট হইতে কাড়িয়া লইয়াছেন তাহাও ফিরাইয়া দিতে হইবে। আর যাহা লুণ্ঠনকালে নষ্ট হইয়াছে তাহার মূল্যস্বরূপ নবাব কোম্পানীকে অর্থ দিবেন।” (৭০)। এখানে দেখা যাইতেছে সন্ধির সৰ্ত্ত অনুসারে নবাব ইংরাজদিগের যত প্রকারের ক্ষতি করিয়াছেন তাহার জন্য তিনি ক্ষতিপুরণ করিয়াছেন। কিন্তু “অন্ধকূপে নিহত ১২৩ জন হতভাগ্যের পরিবারের জন্য কোন ব্যবস্থা করা হইয়াছিল কি? কিছুই না। এই সন্ধির সর্তগুলি ডাচগণের মতে "ইংরাজগণের পক্ষে খুব সুবিধাজনক হইয়াছিল।” (৭১) (৬৮) Hill: Vol I, PP. 46-87. (৬৯) Hill: Vol ii. PP. 71. 75, 7, (৭) East India Company's Treaties and Grants, Ed, 1774 PP. 5472; Bolt’s India Affairs. vol 1, PP. 14 (Appendix) (৭১) “Very anvantageous to the English 5th Feb, 1757, Hill: Vol. 11 P. 223. ৭ ।