পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/৭৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষষ্ঠ পরিচ্ছেদ আবদ্ধ হইয়াছিলেন। (৮৪) হলওয়েলএর বর্ণনাতেও কুক উক্ত তালিকাভুক্ত হইয়াছেন। কিন্তু ফল হইতে প্রেরিত এবং ইংলণ্ডের ‘লণ্ডন ক্রনিকুল’ প্রকাশিত (জুন ৭-৯, ১৭৫৭) পত্রে দেখিতে পাওয়া যায় মিস্ অন্ধকূপে । আবদ্ধ হইয়াছিলেন অবশ্য, কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই সেস্থান হইতে পলায়ন করিয়াছিলেন। তিনি ২১শে জুন প্রভাতে (যেরূপ হলওয়েল বলেন) অন্ধকূপ হইতে বাহির হন নাই (৮৫) ঠিক এইরূপ ব্যাপার কুকএর পক্ষেও ঘটিয়াছে। গ্রে এবং মিলস্ এর বর্ণনা পাঠে জানা যায় যে, কুক তাহার বন্ধু লাসিংটন সহ সেইদিন সন্ধ্যায় নৌকাযােগে পলায়ন করেন। (৮৬) ইহা ‘লণ্ডন ক্রনিকল’ ও ‘স্ক ম্যাগাজিন দ্বারা সমর্থিত হইয়াছে। (৮৭), এইসব ঘাের অসামঞ্জস্য ও পরস্পর বিরুদ্ধ-বিবরণের আমরা কোনটীকে বিশ্বাস করিব? হলওয়েল, মিল, কুক এণ্ড কোর বর্ণনা, না লণ্ডন ক্রনিকল এর প্রত্যক্ষদর্শী সংবাদদাতাকে? নিম্নলিখিত প্রকারে এই অসামঞ্জস্যের সমাধান করিতে পারা যায়। নবাব কর্তৃক কলিকাতা অধিকারের পর ইংরাজগণ কলিকাতা হইতে দিগ্বিদিক পলাইয়া গিয়াছিলেন, কেহ যুদ্ধে প্রাণত্যাগ করিয়াছিলেন, কেহ বা নবাবের হস্তে বন্দী হইয়াছিলেন। নবাবও তাঁহাদের মধ্যে সংবাদ আদান প্রদানের সমস্ত পথ বন্ধ করিয়া দিয়াছিলেন। তাঁহাদের মধ্যে কে কোথায় আছেন। তাহার কেহই খবর জানিতে পারেন নাই। এই সময় জনরব উঠিয়াছিল যে, নবাব বন্দী ইংরাজগণকে অন্ধকূপে আবদ্ধ করিয়া হত্যা করিয়াছেন। (৮৪) Hill: Vol ill. p. 302. (৮৫) Hill: Vol III, p. 72. (৮৬) Ibid: Vol I, p. 43, 19. (৮৭) london Chronicle, June i-c, 1757. Sctos Magazine, May, 1757.