পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/৮৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অষ্টম পরিচ্ছেদ “মরিয়া বাঁচিয়া উঠিল আবার।” হেমচন্দ্র পূর্ব অধ্যায়ে আমরা দেখাইতে চেষ্টা করিয়াছি যে, ১৭০ জন সৈন্যের দুর্গ দখলকালে মাত্র কয়েকজন সৈন্য জীবিত ছিল, কিন্তু হলওয়েল, কুক এণ্ড কোর বর্ণনায় আমরা ১৪৬ জনের তালিকা পাই! এসব লােক। কোথা হইতে আসিল ? অন্ধকূপে “এইরূপ নির্মমভাবে” এতজন লােককে “বন্দী দেখিয়াই তাহারা ক্ষান্ত ছিলেন না। হলওয়েল ১ম পত্রে তাহাদের নাম ধাম ও বিস্তারিত তালিকা কিছুই দেন নাই; তিনি যে ২য় পত্র হুগলী হইতে লিখিতেছেন তাহাতেই বন্দিগনের মধ্যে মৃত, জীবিত ও পলাতক ব্যক্তিগণের একটা লম্বা চওড়া তালিকা দিতেছেন। এই তালিকায় ৫৩ জন ড্রেকের সহিত পলাতক, ৫১জন অন্ধকূপে মৃত, ২০ জন জীবিত এবং ৯ জন হতাহত ব্যক্তির হিসাব দিতেছেন। ১২৩ জন মৃত ব্যক্তির মধ্যে ৫১ জনের নাম দিয়াছেন, আর বলিয়াছেন যে, অবশিষ্ট ব্যক্তিগণকে তিনি চেনেন না। দুর্গ রক্ষায় যে সব লােক নিহত হইয়াছিলেন, সে সব লােকের পূর্ণ নাম অলিকা অমিরা এপর্যন্ত পাই নাই। তবে বিভিন্ন রেকর্ডে যাহা পাওয়া গিয়াছে, তাহার দ্বারাই আমরা হলওয়েলএর। মৃত ব্যক্তির তালিকার সত্যতা নির্ধারণ করিব। হলওয়েলএর অন্ধকূপে মৃত ৫১ জনের মধ্যে নিম্নে ১১ জনের নাম দেওয়া হইল এবং ইহার পরেই আমরা পৃথক কাগজপত্রের সাহায্য প্রমাণ করিব যে, সেই ব্যক্তিগণ হলওয়েলএর অন্ধকূপে প্রবেশ করিবার পূৰ্বেই অর্থাৎ দুর্গরক্ষাকালে নিহত হইয়াছিলেন। ৭৬