পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/৯৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নবম পরিচ্ছেদ সাধারণভাবে বিবেচনা করিয়া দেখিলে এ সম্বন্ধে তাহার সহিত তােমাদের একমত হইবার কোন কারণ দেখি না। ইংরাজগণ আমাদের কি ক্ষতি করিয়াছেন যে, আমরা তাহাদের অশুভ কামনা করিব ? সাম্রাজ্যের চতুর্দিকে যে দাবানলের সূচনা হইয়াছে তাহা নিৰ্বাপিত করাই কষ্টকর হইয়া পড়িয়াছে, সমুদ্রে আগুন লাগিলে আর কে নিবাইবে? কোনদিনই । এরূপ পরামর্শ গ্রহণ করিও না ; কারণ ইহা পরিণামে সাংঘাতিক হইতে পারে।” (১১) এই সব কাগজপত্রের বর্ণনা পাঠে মনে হয় হলওয়েলএর উক্তি সম্পূর্ণ মিথ্যা। মিঃ বেচার বলেন “তাঁহার পিতামহের উপদেশের কথা বাদ দিলেও, ইংরাজগণ নবাবকে যথেষ্টরূপেই উত্তেজিত করিয়া ছিলেন।” (খ) কলিকাতায় প্রেরিত নবাবের দূত নারায়ণ সিংহ সম্বন্ধে তিনি বলেন “তিনি একজন চোর ও গুপ্তচরের ন্যায় দুর্গে প্রবেশ করিয়াছিলেন, সেকারণ তাঁহাকে বা তাহার পত্র গ্রহণ না করিয়া ভদ্রভাবেই তাহাকে দুর্গ ত্যাগ করিতে বলা হইয়াছিল এবং তিনিও সেই ভাবেই দুর্গ ত্যাগ করিয়া চলিয়া গিয়াছিলেন। নারায়ণ সিংহের দুর্গ প্রবেশ সম্বন্ধে ‘বেচার সাহেব বলেন “আমি দৃঢ়কণ্ঠে বলিতে পারি যে, তিনি ছদ্মবেশে দুর্গে প্রবেশ করেন নাই এবং হলওয়েল সাহেবের বর্ণনাই আমার মনে দৃঢ় বিশ্বাস জন্মাইয়া দিয়াছে যে, তিনি এরূপ করেন নাই। (১২) অন্যান্য কাগজপত্রেও আমরা এরূপ প্রতিবাদ দেখিতে পাই। ড্রেক ও হলওয়েল যে দূতের প্রতি অভদ্র ব্যবহার করিয়াছিলেন সে সম্বন্ধে টুক (Tooke) বলেন “ড্রেক নবাবের দূতের প্রতি অনেক কটুক্তি করেন


Bodhisattwa-bot (আলাপ) ০৮:৪৮, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ (ইউটিসি) ~ Bodhisattwa-bot (আলাপ) ---- | (১১) Siyarul-Mutakh-khirin vol. Il pp. 163–64 (Eng Tron),

(১২) Becher's letter to the Council of Fort William, lated, 25 January, 1757. Hill : i. p 159.