পাতা:অন্ধকূপ-হত্যা-রহস্য - মুজিবর রহমান.pdf/৯৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


“অন্ধকূপ-হত্যা”-রহস্য বলেন “হলওয়েল যে দুর্গমধ্যে অবস্থান করিতেছিলেন, তাহা তাঁহার স্বেচ্ছক্ৰমে নয়, নৌকা না পাওয়ার জন্যই তিনি পলায়ন করিতে না পারিয়া দুর্গমধ্যে থাকিতে বাধ্য হইয়াছিলেন।” (২২)। (ঙ) হলওয়েল নবাবের সহিত সাক্ষাত সম্বন্ধে বলেন “তাহার সহিত তঁাহার (হলওয়েল) তিন বার সাক্ষাৎ হয় ; শেষ সাক্ষাৎটা সন্ধ্যা ৭টার সময় হয়। তখন তিনি অভয় দিয়া বলিয়াছিলেন যে আমাদের কোন ক্ষতি হইবে না।••••••••••••প্রহরীবেষ্টিত হইয়া বারান্দায় বসিয়াছিলাম তখন কতকগুলি লােককে মশাল বাতি লইয়া এদিক ওদিক ভ্ৰমণ করিতে দেখিয়াছিলাম ; তাহারা আমাদিগকে রাত্রে আবদ্ধ রাখিবার জন্য একটা ঘরের সন্ধানে ছিল। এই সময়ের মধ্যে তাহার লিচ, নামক (Mr. l.eech) জনৈক পলাতক বন্ধু গােপনে দুর্গে প্রবেশ করিয়া তাহাকে জানান যে, তিনি তাহার পলায়নের জন্য একটা নৌকা আনিয়াছেন, এবং তাহাকে তাহার সহিত পলাইতে অনুরােধ করেন। হলওয়েল তাহাতে অসম্মত হইয়া তাহাকে জানান যে, সঙ্গিগণকে এইরূপ ভাবে ফেলিয়া যাইতে তাহার ইচ্ছা নাই। এসম্বন্ধে তাঁহাদের অনেক কথাবার্তা হয়। তৎপর নবাবের সৈন্যগণ কর্তৃক তাহারা অন্ধকূপে বন্দী হন। ঘরে প্রবেশ সম্বন্ধে তিনি বলেন “নবাবের সৈন্যগণ তাহাদিগকে অন্ধকূপে এত শীঘ্র ও অপ্রত্যাশিতভাবে প্রবেশ করিতে আদেশ করায় দ্বিরুক্তি না করিয়া বাতাবিক্ষুব্ধ তরঙ্গ যেমন একটা অটীর উপর আছড়াইয়া পড়ে, আমরাও তদ্রুপ কমধ্যে প্রবেশ করিতে লাগিলাম ; অবশিষ্ট ব্যক্তিগণ প্রবল বন্যার স্রোতের ন্যায় আমাদিগকে অনুসরণ করিয়া কক্ষে প্রবেশ করিলেন। আমাদের কাহারও এ কক্ষ সম্বন্ধে কোন ধারণা ছিল না, অবশ্য সৈন্যগণের কথা বাদ দিয়াই বলিতেছি••••"ইহার আকার ও আয়তন আমরা (২২) Clive's letter to Mabbot, Hil : i. P,16,