প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:অপরাজিত - বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়.pdf/৭৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Գծ অপরাজনীতি রাশিক্তি করিয়া রাখিয়া দেয়। অপর নিজে বার দই পরিস্কার করিয়াছিল। এক টুকরা রবারের ফিতার মতই ঘরের নোংরামিটা স্থিতিস্থাপক-পব্যবস্থায় ফিরিতে এতটুকু দেরি হয় না”। খাওয়া-পরা-থাকিবার কািট অপ, কখনও করে নাই, বিশেষ করিয়া একলা যঝিতে হইতেছে বলিয়া কষ্ট আরও বেশী । অন্যমনসকভাবে যাইতে যাইতে সে কৃষ্ণদাস পালের মতির মোড়ে আসিল । যন্ধের নাতন খবর বাহির হইয়াছে বলিয়া কাগজওয়ালা হকিতেছে । শেয়ালদার / একটা ট্রাম হইতে লোকজন নামা-উঠা করিতেছে। একটি চোখে-চশমা তরণ যবকের দিকে একবার চাহিয়াই মনে হইল-চেনা-চেনা মািখ ! একটু পরে সেও অপর দিকে চাহিতে দইজনে চোখাচে্যুখি হইল। এবার অপর চিনিয়াছেসারেশন্দা ! নিশ্চিন্দিপরের বাড়ির পাশের সেই পোড়ো ভিটার মালিক নীলমণি জ্যাঠামশায়ের ছেলে সব্বেশ ! সারেশও চিনিয়াছিল। অপর তাড়াতাড়ি কাছে গিয়া হাসিমখে বলিল, সরোিশদা যে । যোবার দরগা মারা যায়, সে বৎসর শীতকালে ইহারা যা কয়েক মাসের জন্য দেশে গিয়াছিল, তাহার পর আর কখনও দেখাসাক্ষাৎ হয় নাই। সরেশ আকৃতিতে যািবক হইয়া উঠিয়াছে। দীঘ দেহ, সংগঠিত হাত পা । বাল্যের সে চেহারার অনেক পরিবতন হইয়াছে। সরেশ সহজ-সারেই বলিল-আরে অপবৰ্ণ ? এখানে কোথা থেকে ? সরেশের খাঁটি শহরে গলার সরে ও উচ্চারণ-ভঙ্গিতে অপ, একটু ভয় খাইয়া গেল । সরেশ বলিল-তারপর এখানে কি চাকরি-টাকরি করা হচ্ছে ? --না-আমি যে পড়ি ফাস্ট ইয়ারে রিপনে--তাই নাকি ? তা এখন যাওয়া হচ্ছে কোথায় ? অপ, সে-কথার কোনও উত্তর না দিয়া আগ্রহের সরে বলিল, জ্যোঠিমা কোথায় ? - এখানেই, শ্যামবাজারে । আমাদের বাড়ি কোেনা হয়েছে সেখানে - সমরেশের সহিত সাক্ষাতে আপ ভারী খশী হইয়াছিল। তাহদের বাড়ির পাশের যে পোড়ো ভিটার বনঝোপের সহিত তাহার ও দিদি দােগর আবাল্য অতিমধর পরিচয়, সেই ভিটারই লোক ইহারা। যদিও কখনও সেখানে ইহারা বাস করে নাই, শহরে শহরেই ঘোরে, তবও তো সে ভিটারই লোক, তাহা ছাড়া দশ ब्राप्ति खाऊ, अ5 उभा°भाद्ध अम । অপ বলিল-আতসৗদি এখানে আছে ? সনীল ? সনীল কি পড়ে ? -এবার সেকেন ক্লাসে উঠেছে -- আচ্ছা, যাই তা হলে, আমার ট্রােম আসছেসরেশের সরে কোনও আগ্রহ বা আন্তরিকতা ছিল না, সে এমন সহজ সরে কথা বলতেছিল, যেন অপাের সঙ্গে তাহার দইবেলা দেখা হয় । অপ, কিন্তু নিজের আগ্রহ লইয়া এত ব্যস্ত ছিল যে, সরেশের কথাবাতাের সে-দিকটা তাহার কাছে ধরা পড়িল না ।