পাতা:অবলা প্রবলা.djvu/১৩৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২৪ ৷ অবলা প্রবলা । যদিও কামিনী রাথে উহার বিরহে। দেথিব সক লে কেব। কেমন বীর হে । বিরছির কাছে শক্তি তোমা সবাকার । তাহে মারি কি পৌরুষ যেই শবাকার । পীড়িত করিতে যদি পারহ দম্পতি । তবে বলি ধন্য সবে ধন্য রতিপতি । ওহে মায় মান। কৈলে কদাপি শুন তা । ভস্ম কৈল হুর হেরে এই পিশুনতা। তবু নাহি লজ্জা হৈল এ আর কে মন । এত শান্তি পেয়ে থলতায় থাকে মন । । এই বাণ মনঃখেদে নানাবিধ ভাষে । সম্বোধন করি জনেই কত ভাষে । হেন কালে সুলোচনী টলই ভাবে । নিকটে আইল যথ) বসি রায় ভাবে । শ্ৰীকালীঙ্গমার মনোহর প্রতি ফিরে । কহে যুলরাজ বুঝি তব ভাগ্য ফিরে । ^. অথ সুলোচনা সখীর সহিত মনোহরের কথোপকথন । দীর্ঘ চম্ভন্নদী ছন্দ । রঙ্গ ভঙ্গ অঙ্কে মাথি, মুহুর্মুহু ঘুরে অ্যাথি, যেমন থঞ্জন পার্থী নাচে সৃথ সাগরে । অন্তরে পুলকে পশি, সুলোচন। মূৰূপসী, কাছে আসি হাসি২, জিজ্ঞাসিছে লাগরে ৷ পেতে নানা ছলে বলে, অভ. ল ৰূপে ভূতলে, বসিয়াছ তৰুতলে, কে বট গুণ মণি । তব লাবণ্য বিজুরী অঙ্গের রূপ মাধুরা