পাতা:অবলা প্রবলা.djvu/১৪৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১৩০ অবল প্রবলা । তোমার মন, হুইয়াছে উচ্চাটন, একবার দরশন, করিয়া ঈমারীকে । আই ৰূপ আছে রহে, ও রূপসী যত সহে,পতি বিনা কতকছে, বুঝাইবে ধরিকে । এবে হে দোহার মন, দোহার প্রতি ধাবন, হুইয়াছে সূমিলন, করি চল যতনে । এৰূপ গুণের নিধি, যদি মিলাইল বিধি, ছাড়িবেন। এই বিধি, তোম। হেন রতনে । করি তা উপাসন, আই দেথ নৃণাঙ্গনী, লজ্জা ভয় বিবেচন, মাহি করে মননে । বিলম্ব আর করন করহে শস্ত্ৰ চলন, মরি মরি চন্দ্বানন, ভাবে তত্ব কারণে। পূঙ্গি বুঝি দিগম্বর, গত রাত্রি কোন বরং পাইয়াছে ন হে বরং হেল রূপ বর হুে । ধনীর কি ধন্য ভাল, মিলন হইল ভাল, যেমন সে চিরকাল ছিল পতি বিরহে ৷ শুনি কহে মনোহর, কেন পরিহাস কর, এমন কি ভাগ্যধর, আমি আর হইব । বিধাতা মিলায় তবে, ইহা নাকি মোর হবে, ডুবদিব রসার্ক্সবে, উহারে কি পাইব ॥ একে নিষ্ঠুর অনঙ্গ, পোড়াইছে মম অঙ্গ,কাটা ঘায় করি ব্যঙ্গ, লবণেতে দলন । না করিয়া পরিত্রাণ, উলটিয়া বধ প্রাণ, এ আবার কি বিধান, এ দেশের ললনা। শুনি কহে সুলোচনা কেন ভাব প্রবঞ্চনা, করি দেখ বিবেচনা ও যে রাজনন্দিনী। কি কারণে