পাতা:অভেদী.pdf/৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ ७७ ] মাধুর্য্যে বর্ণান্তর হইল, ও তিনি মনে করিলেন যে বেশ্যার এ বিলাপ যদি কেবল পর্তী জন্য হয়, তৰে এভাব প্ৰসংশনীয় } বেশ্য যাহা গাম করিতেছিল তাছা ভাব বৰ্দ্ধন জন্য নহে, কেবল চটক ও বহি আমোদ জন্য সুতরাং ক্রমশ সংগীতের কপট সাধুভাব তিরোহিত হইতে লাগিল। পতিভাবিনী তাছাতে মন জর না দিয়া পতিভাবিনী হইয়া চলিলেন। রাত্রি অন্ধকার--দিল্লিরব হইতেছে-ৰনরাজী উপরি পঙ্কির খট্‌মটু কৰিয়া পাখা নাড়িতেছে—শিব সকল হুয়া হুয়া শব্দ করিতেছে—য়াখাল হুক হাতে চীৎকার করিয়া গান করিতেছে-“ যদি শ্যাম না আলো আজু বিপিনে তবে কি করি সজনি পথিকের স্রোত ভাট পড়িয়াছে— কচিৎ এখানে ওখানে এক আদি জন লোক দেখা যায়তিমিরের ক্রমশ বৃদ্ধি। পতিভাৰিনী চতুর্দিক অন্ধকার দেখিয়া डीऊ शहट्नम मा । श्रांशनटनङ्ग गृल नल ज*ानौश्वग्न । रटिश হতাশ হুইয়া অস্তুর অবলম্বনে অধিক ইচ্ছ ছইল ও যখলু বাঙ্ক শূন্য ও অন্তর পূর্ণ তখন আন্তরিক উজ্জ্বলতা প্রকাশ পায়। পতিভাধিনী গমনে ক্ষান্ত হইয়। একটি ভয় প্রাfচরের পাশ্বে বসিয়া আত্মা সমাধান করিব মাত্রই প্রচুর অন্তর আলোক পাইলেন ও ধ্যাম যোগের দ্বারা পর্তী কোথায়— কি করিতেছেন ও ভবিষ্যতে র্তাহার যে অসীম লাভ হইবে তাছ। সমুদায় চিত্রপটের ম্যায় দেখিলেম । ক্ষুধা তৃষ্ণ ও নিদ্র। কিছুই নাই-আত্মা শীতল-মনে হইল নাথ এই জনা আজুৰিদ্য। এভ অনুশীলম করিতেন। এক্ষণে ব্যাকুল হইব না—কোন স্থানে যাইড্রে হইবে ও কখন কঁহাকে দর্শন