পাতা:অভেদী.pdf/৫৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


[ 88 | গুড় ঠাকুরদের দিয়া রাথিয়াছি-গাছে রঞ্জাও আছে, কৰ্ত্ত। বড় যত্নে এ রম্ভার গাছ অtfময় পুতিয়াছেন। পতিভাৰিনী বলিলেন—মা ! তোমার মিষ্ট বাক্যেতেই মামার ভোজন হইল। আমি তোমার কন্যার স্বরূপ—তোমায় পাতে খাইতে পারি, হাতে তো অবশ্যই থাইৰ । ব্রাহ্মণী। আমার পোড়া কপালের দশা! পাতে কেম খেতে যাৰে ? মা ! অপেক্ষণের মধ্যেই তোমার ভাল স্বভাব দেখিয়া বড় তুষ্ট হইয়াছি-ভোজনের পর কিছু মনের কথা বস্থৰ। তেপান্তর মাঠে পড়িয়া রহিয়াছি—মন্ট ওম্বরে ওমরে উঠে। এমন ৰাথার ব্যর্থী পাইলা যে তার কাছে মন খালাস कष्ट्रि ! ভোজমের আয়োজন বিলক্ষণ হইয়াছিল। রাজুনি পাগল ধমের অল্প-উচ্ছে ভাতে, পটল ভাতে, বেগুণ পোড়, মটে খাড়া, ৰড়ি, থোড়, চুমচিংড়ি দিয়৷ চচ্চড়ি, কৈমাছ फांज, c*ांमांभां८श्ब्र cनांल, बांग्रेोभt८हम्न व्ञांधन, धन कूश, চাপাকলা ও জমাট একোগুড় । জাহারের পর দুইজনে তাল গ্রহণ করিয়া শীতল পাটিতে শয়ম করিলেন । পতিভাfবর্মী ক্রমশ: অপেন বৃত্তান্ত সংক্ষেপে বলিলেন। ব্রাহ্মণী শুনিয়া খড়মড় করিয়া উঠিয়া বলিলেন—ম! তুমিতে সামান্য মেয়ে মও-তোষাকে দেখলে পুণ্য হয় । আমার ষেমম পোড়া কপাল তা কি ৰন্থৰ ? স্বামী व्ञाटछ्म-aझेमांऊ । लन्wझे, ८ङग्नां नैौ ७ प्रट्झांभांठॉल । शांटऊ ধরেছি-পায়ে ধরেছি-ঝাড়ম, মন্ত্র, ঔষধি কিছুই বাকি করি লই কিন্তু কিছুতেই ৰশ করিতে পারি লাই। ঘরে এলে