পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/১২৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২৫ অমরনাথ । র্যাড়ে। কেন দেব ? অামি তো তোমার মত উড়ন্‌চড়ে না। আমি দেখতে পাচ্ছি যে আজ বাদে কাল ঐ বলদবাহন, সুশীল এদের দুভেষেব বিযে দিতে হবে, বউদেব গহনা তাও যে সকল ভাল রকম গোছাল, তা, না ছোট বউযেরই আছে না বড় বউয়েরই আছে। এ সকল আগে, ন, তোমাব ঐ মাঙ্গনৃত। বেটার অাগে ? অমর । তা এ সকল হবাব বাধা কি ? আমি এই বৎসরই যে টাকা পাঠায়েচি, তাতেই যে এ সকল কাজ ন্যায্য মত অনাযাসে হোতে পাবে। র্যাড়ে । তুমি তো বোল্‌লে হোতে পারে। যে হাতে কলমে করে, সেইই জানে, সংসাব করা মজাটা কেমন। সে যা হোক তুমি এখন ও সব নবাবি বন্দ কব । ও সব হবে টবে না । অমর। মহাশয, বলেন কি ? তাকি ছোতে পারে? আমি যখন র্তাদেব অঙ্গীকার কোরিচি, তখন কি আর উপায আছে ? অামার সাধ্য যত দিন, তা দিতেই হবে। না বল হোতে পারে না। আর তা বলবারই বা প্রয়োজন কি ? আপনাদের বাস করবাব মত একখানি বাড়ী হযেচে, চলুবার মত একটি বিষয় হয়েচে, কিছু সঞ্চয করা আবশ্যক তাও হযেচে। ষাড়ে । (স্বগত) মনের ভিতর এই ভেবেচ, তা বাড়ীও খেও, বিষযও খেও, টাকাও খেও । অমর | এই যা হযেছে তা আমাদেব সস্তানরা যদি পরিমিত ব্যয়ী হয় তো এতিই পুরুষানুক্রমে চোলতে পাবে, আরও বাড়তে পাবে। আর যদি অপব্যয়ী হয, তবে এর দশ গুণ টাকা রেখে গেলেও তারা দরিদ্র হবে। কদলী বৃক্ষ পরিমিত ব্যয়ী, প্রথম আগত কালের উপায় সংস্থান না কোরে সে সঞ্চিত ত্যাগ করে না । এই নিমিত্ত যদিও তার এক সময়ে একটি বই পত্র হয় না, তথাচ সে তাতেই লোকের উপকার করে, আরও চিরকাল পত্রে ভূষিত থাকে। আর আমড়া অল্প দিনে সমুদয পত্রগুলি