পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/১৬৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অমরনাথ । >Q* অমরনাথের শয়নাগার । (অমরনাথ এবং কমলবাসিনী এক পালঙ্গে উপবেশন, অন্য পালঙ্গে চারুকমল এবং সুশীলচন্দ্র मिझिङ ) কমল । তুমি আজ যে কিছুই আহার কোল্লে না ? মুদ্ধ বসীমাত্র। অমর। ই, এই পথের কষ্ট আর ক্লেশ । এ রকম থাকুবেন । কমল। তোমার চেহারাও অতিশয় মলিন হয়েছে। যখন এসেছিলে, তখন তো এমন ছিলন । অমর। তা হবে, হয়ে থাকবে । ( চারু এবং সুশীলের প্রতি দৃষ্টি করিয়া ) আ—হ! কমল । ই, দেখেচ ? কি সুন্দর শোভা হয়েচে । যেন স্বৰ্গ হতে একটি দেবকন্য। আর দেবপুলকে নিদ্রাবস্থায় পালঙ্গ সুদ্ধ কে হরণ কোরে এনেচে। ওরা দুভাই বোনে তোমাকে দেখাবার নিমিত্তে ইংরাজিতে কি লিখতে লিখতে অমনি ঐ খেনেই ঘুমিয়ে পোড়েচে। চারু তোমার জন্যে কত দিন ধোরে জুতোর কারপেট ভৈয়ের কচ্ছিল, তাই খানিক বাকী ছিল, তাই আজ বোসে বুনেচে। এমন চমৎকার বুনেচে যে, ইংরাজের বিবিরাও অমন পারেনা। সেই কারপেটের জুত তৈয়ের কোরিয়ে এনে তোমাকে পোরিয়ে, তবে বাড়ী থেকে যেতে দেবে, এই জন্যে তোমার এক জোড়া পুরাণ জুত পোড়ে ছিল, তারই মাপ নিয়ে রেখেছিল । তা এখন এলাহাবাদ যাবার কথা শুলে আমাকে জিজ্ঞাসা কোচ্ছে যে, মা ! এলাহাবাদের লোক কারপেটের জুত তৈয়ের কোত্তে পারে ? ওরা মনে করে যে, তোমার সম্বন্ধে যত কিছু কথা, তুমি যেখানে থাক, সেখানে কি আছে না আছে, এ সবই আমি জানি। ( অমরনাথের প্রতি দৃষ্টি করিয়া ) ও কি ? তুমি কিছু শুন্‌ছ না ? তোমাকে অন্যমনস্ক দেখচি কেন ?