পাতা:অমরনাথ (কৃষ্ণচন্দ্র রায় চৌধুরী).pdf/২৪১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৩২ অমবনাথ । ভয় নি। কে তোমাব বাল্লককে মাত্তে এসবে কোই এতে বল না, তাকে একক লাঠিতে অগ্রগোদিপের গুপীনাথ দেখিয়ে দি । র্যাড়ে। কি ও, গুপিনাথ ! তুমি আমাকে মার্বে ? তা মাব, এখন আমার মরণটা হলিই বাচি। সুশীলকে না হক চড়ড মেবিচি। ভা আমার একটি ছেলে মরাতে আমার জ্ঞান বুদি হীরা হযে একাজ হযেছে। ওর ঐ তাড়া তাড়ি গিলতে বুকের চোড়ঙ্গে আটকে মোবেচে । আমবা মানা কোচ্ছি যে সুশীলকে ও ছুট দিইচি ও তেবে কেড়ে খাবাব আবিশ্বক কি ? ত না শুনে খেয়ে শেষ গলায় বেদে মোল। তা ছোট বউকে বুঝয়ে বল আমার তো এই সববনাশ হল । আমার বাড়ী ঘব মিথ্যে হল । তা আমি জ্ঞান হারা হযে এক কন্ম কোরিচি তা অার কিহবে । (বোদন) [ বলদ বাহনের শব লইয়া ষাড়েশ্বর ও ভৈরবীর প্রস্থান । গোপী। আবাব একটুথুনি সাউথুড়ি না কোন্নে হয নি। আমরা আর ধানের ভাত খাইনি। রসগোল্লা গলায় আটকে মোরেচে। আমরা কিছু বুঝিনে। আমব মানুষ লোই, বটে ? (মতিলাল, গ্রেহাম সাহেব এবং বিবি গ্রেহীমের প্রবেশ ) মতি। কোথায, ও বাবা, সুশীল । সুশীল । ( নেপথ্যে ) আজ্ঞে । মতি । এই দিকে এসে । তোমার মাস্টর আর মেম সাহেব এসেচেন। ( গোপীনাথের প্রতি ) শীঘ্ৰ দুখান কেদেরা লয়ে এসে । ( সুশীলের প্রবেশ ) সাহেব। কিহে মুশীল, তোমার গাস্ট ফুলে উঠেচে আর লাল হযেচে কেন ?